রাজশাহীর উন্নয়নে আরো ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প বরাদ্দ আনতে চান লিটন

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের অর্ন্তগত ১ থেকে ১২ নং সাংগঠনিক ওয়ার্ডের সকল মহল্লা কমিটির নেতৃবৃন্দকে নিয়ে ঈদ পুর্নমিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ডা. কাইছার রহমান চৌধুরী মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জননেতা এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আগামী ২১ জুন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মেয়র পদে আবারো দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর উন্নয়নে ২০১৯ সালে প্রায় ২৮০০ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেন। এই প্রকল্পে এখন পর্যন্ত ১২০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন হয়েছে। হাতে আরো প্রায় ১৫০০ কোটি টাকা রয়েছে। এরসাথে আমি যদি আবারো নির্বাচিত হই, তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করে আরো ৩ থেকে ৪ হাজার কোটি টাকার বড় বরাদ্দ নিয়ে আসবো ইনশাল্লাহ। আমি আবারো জয়যুক্ত হলে আগামী ৩/ ৪ বছরে রাজশাহী আরো পরিবর্তন হয়ে যাবে।
রাসিক মেয়র আরো বলেন, আবারো নির্বাচিত হলে সিটি এরিয়াকে বৃদ্ধি করা হবে। রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমানবন্দরের আধুনিকায়ন ও উন্নয়ন হবে। রাজশাহী থেকে কলকাতা সরকারি ট্রেন ও বাস সার্ভিস চালু করার ব্যাপারে অনেক দূর এগিয়ে গেছি। ভারতের মুর্শিদাবাদের ধূলিয়ান থেকে রাজশাহী হয়ে আরিচা পর্যন্ত নৌ রুট চালুর কাজেও অগ্রগতি হয়েছে। এই ট্রেন, বাস ও নৌরুট চালু হলে রাজশাহীর ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিধি বৃদ্ধি পাবে, অনেক মানুষের কর্মসংস্থান হবে। ইতোমধ্যে রাজশাহীতে অনেক উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। এবার কর্মসংস্থানের ব্যাপারে জোর দিচ্ছি। সবই কিছুই সম্ভব হবে আগামী ২১জুন নির্বাচনে আমি আবারো জয়যুক্ত হলে। আপনারা সবাই পাশে থাকবেন, দোয়া করবেন।
ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল। অনুষ্ঠানে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ শাহাদাত হোসেন, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, ডা. তবিবুর রহমান শেখ, নাইমুল হুদা রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আহসানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আসলাম সরকার, আজিজুল আলম বেন্টু, প্রচার সম্পাদক দিলীপ কুমার ঘোষ, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. মুসাব্বিরুল ইসলাম, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডা. ফ.এম আ জাহিদ, শ্রম সম্পাদক আব্দুস সোহেল, সদস্য এ্যাড. মোজাফফর হোসেন, নফিকুল ্িসলাম সেল্টু, নজরুল ইসলাম তোতা, মোসাদ্দেক হোসেন লাবলু, সদস্য ও রাজপাড়া থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি হাফিজুর রহমান বাবু, সদস্য ও বোয়ালিয়া থানা (পশ্চিম) আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম, সদস্য মোখলেসুর রহমান কচি, মাসুদ আহমেদ, বোয়ালিয়া (পূর্ব) থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, বোয়ালিয়া (পশ্চিম) থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতন, রাজপাড়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আনসারুল হক খিচ্চু, ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ ও মহল্লা কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


প্রকাশিত: এপ্রিল ২৬, ২০২৩ | সময়: ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ