জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত

ঢাকা অফিস: বাংলাদেশ শিল্পী সমিতি নির্বাচনে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নির্বাচনের আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। এক সপ্তাহের মধ্যে মামলার বিবাদীদের এর জবাব দিতে বলা হয়েছে। সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব আদেশ দেন। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জায়েদ খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলে, ‌‘হাইকোর্টের আ‌দে‌শ আমার পক্ষে এসেছে। আমি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটারদের ভোটে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। মহামান্য হাইকোর্টও আমার পক্ষে আদেশ দিলেন।’ ভোট কেনার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে চিত্রনায়িকা নিপুণকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বিজয়ী ঘোষণা করেছিল আপিল বোর্ড। এরপর গতকাল (৬ ফেব্রুয়ারি) সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন ও সাধারণ সম্পাদক নিপুণসহ নতুন কমিটির ১০ জন শপথ নিয়েছেন। অন্যদিকে, আদালতে জায়েদ খানের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম ও আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথি। আহসানুল করিম বলেন, ‘নিপুণ আক্তারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আপিল বোর্ডকে গত ২ ফেব্রুয়ারি সমাজসেবা অধিদপ্তরের দেওয়া চিঠির কার্যকারিতা এবং জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নিপুণকে বিজয়ী ঘোষণা করে আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্তের কার্যকারিতা স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।’ তিনি আরও জানান, একই সঙ্গে সমাজসেবা অধিদপ্তরের চিঠি এবং আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, এই মর্মে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এছাড়া জায়েদ খানের দায়িত্ব পালনে কোনও প্রকার বাঁধা না দিতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২২ | সময়: ২:১৫ অপরাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর