নগরীতে বিভিন্ন পথসভা করলেন ফজলে হোসেন বাদশা

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যারা ক্ষমতা থেকে সরিয়ে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চায়; তারাই নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী-২ আসনে ১৪ দল মনোনিত নৌকার প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশা। রোববার বিকেলে নগরীর তালাইমারি শহিদ মিনার থেকে আলুপট্টি মোড় পর্যন্ত গণসংযোগ পরবর্তী পথসভায় দেয়া বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়ার জন্য বিদেশি শক্তি তৎপর। তিনি দেশের মানুষের শক্তি নিয়ে বিদেশিদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। আজকে নৌকা প্রতীক মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের প্রতীকে পরিণত হয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে যে পরিবর্তন এনেছেন; সেই পরিবর্তনের প্রতীক হচ্ছে নৌকা প্রতীক। সেই নৌকা প্রতীক জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার হাতে তুলে দিয়েছেন রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য। আমাদের এখন একটাই লড়াই; জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখা এবং রাজশাহীর উন্নয়নকে এগিয়ে নেয়া। যারা সেই নৌকা প্রতীকের বিরোধীতা করছেন; তারা জননেত্রী শেখ হাসিনাকেই ক্ষমতা সরাতে চান। আপনারা নৌকার বাইরের সেই প্রতীকগুলোকে প্রত্যাখান করবেন।
নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে সমর্থনের বিষয়টি প্রমাণ করার আহ্বান জানিয়ে দেশের বর্ষিয়ান এই রাজনীতিক বলেন, রাজশাহীর উন্নয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা যে সমর্থন দিয়েছেন; এর বিপরীতে তার প্রতি আমাদের যে অবাধ সমর্থন রয়েছে, তা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে প্রমাণ করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে শিক্ষা নগরী উপহার দিয়েছেন। আজকে এতো সুন্দর ও চমৎকার যে নগরী দেখছেন, সেটিও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার। তিনি সবসময় আমাদেরকে বুক উজার করে অনেক কিছু উপহার দিয়েছেন। এতে করে আমাদের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি যেমন এগিয়েছে, তেমন রাজশাহী শহর দেশজুড়ে সুনির্দিষ্ট সুনাম অর্জন করেছে। জননেত্রীর দেয়া সেই উপহারের প্রতিদান দেয়ার সময় এখন আমাদের। তাই আগামী ৭ তারিখের নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আমরাও জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই।
গণসংযোগকালে এমপি ফজলে হোসেন বাদশার সঙ্গে স্থানীয় বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ জনতা উপস্থিত ছিলেন।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৫, ২০২৩ | সময়: ৪:৩৮ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর