নারী বিশ্বকাপে ৯ খেলোয়াড় নিয়েও খেলা যাবে

স্পোর্টস ডেস্ক: আগামী মার্চে নিউ জিল্যান্ডে হতে যাওয়া নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য নতুন প্লেয়িং কন্ডিশন ঘোষণা করেছে আইসিসি। বৃহস্পতিবার বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ সংস্থা জানিয়েছে, কোনো স্কোয়াডে করোনাভাইরাস আঘাত করলে মাত্র ৯ জন খেলোয়াড় মাঠে নামাতে পারবে, বাকি দুজন ব্যাটিং বা বোলিং ছাড়া বদলি খেলতে পারবেন।
যতটা সম্ভব, স্বাভাবিকভাবে টুর্নামেন্ট চালিয়ে যেতে ও দলগুলোর পাশে দাঁড়াতে আইসিসি এই ব্যবস্থা নিলো। আইসিসি ইভেন্ট প্রধান ক্রিস টেটলি বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘কোভিড পরিপ্রেক্ষিতে আমাদের একটু নমনীয় হওয়া প্রয়োজন, এই ধরনের পরিস্থিতিতে যেন খেলা ঠিকঠাক চালিয়ে নিতে পারি।’
এবারের বিশ্বকাপে মূল দলের সঙ্গে বাড়তি খেলোয়াড় নিয়ে যেতে পারবে দলগুলো। কোনো কারণে করোনা আঘাত করলে ন্যূনতম ৯ জন নিয়েও খেলতে পারবে তারা, সেক্ষেত্রে টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে বদলি দুজন নামানো যাবে। টেটলি বলেছেন, ‘সবার আগে, আমরা স্কোয়াডের আকার বড় করার ব্যাপারে বলেছি। আগের মতো ১৫ জনের দল থাকলেও আমরা বাড়তি হিসেবে ট্র্যাভেলিং রিজার্ভে কয়েকজনকে রাখতে অনুমোদন দিয়েছি। যেন তারা কোভিডের কারণে বাদ পড়া খেলোয়াড়দের জায়গায় তাদের নিতে পারে। যদি অপরিহার্য হয়ে পড়ে, তাহলে আমরা একটি দলকে ৯ জন নিয়ে মাঠে নামতে দিবো। আর ম্যানেজমেন্ট টিমের কাছে বদলি নামানোর মতো খেলোয়াড় থাকে, তাহলে আমরা দুজনকে বদলি নামতে দিবো। তবে তার ব্যাটিং বা বোলিং করতে পারবে না, কেবল অংশ নিতে পারবে।’
এছাড়া টাই হওয়া ম্যাচের ফল পেতে প্রয়োজনে সীমাহীন সংখ্যক সুপার ওভার থাকবে। আগামী ৪ মার্চ টাউরাঙ্গায় বিশ্বকাপ শুরু হবে এবং ফাইনাল হবে ৩ এপ্রিল ক্রাইস্টচার্চে। প্রতিটি দল অন্য সাতটি দলের সঙ্গে মুখোমুখি হবে। শীর্ষ চার দল যাবে সেমিফাইনালে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২ | সময়: ৫:২১ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ