ফ্লাটে নারীকান্ড : তরুনীকে আটক দেখালেও হদিশ নেই চেয়ারম্যান সোহেলের

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী নগরীতে ভাড়া করা একটি ফ্ল্যাটে শুক্রবার সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে এক তরুণীসহ আটক করে গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের সোহেল রানাকে। তবে তিনি কৌশলে পুলিশের কাছ থেকে পালিয়ে যান। অভিযুক্ত সোহেল রানা ৬নং মাটিকাটা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান। শপথ গ্রহণের আগেই তার এই নারী কেলেঙ্কারির ঘটনা এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ স্থানীয়দের মাঝে সামালোচনার ঝড় তোলে।
শুক্রার সন্ধ্যার এই ঘটনার পর ওই ইউপি চেয়ারম্যানকে পলাতক দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রসিকিউশন করেছে বোয়ালিয়া থানা কর্তৃপক্ষ। আর আটককৃত ওই তরুণীকে গ্রেফতার দেখিয়ে শনিবার আদালতে চালান দেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ।
এদিকে মাটিকাটা ইউনিয়নে ১০ ডিসেম্বর শুক্রবার একটি ইসলামী জালসায় ওই ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রধান অতিথি করা হলে এসংক্রান্ত একটি পোস্টার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় ও তা নিয়ে সমালোচানার সৃষ্টি হয়।
সূত্রমতে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে পৌর মেয়র সোহেল রানা থিম ওমর প্লাজায় ভাড়া করা একটি ফ্ল্যাটে অপরিচিত এক তরুণী সহ প্রবেশ করেন। এর পর শিরোইল পুলিশ ফাঁড়িতে খবর পৌছায় ওই ফ্ল্যাটে অসামাজিক কর্মকাণ্ড চলছে। খবর পেয়ে পুলিশ খটনাস্থলে পৌছায়। সোহেল রানা পুলিশকে জানান তার ফ্ল্যাটে অন্য কেউ নেই। তবে তার উপস্থিতিতে পুলিশ ওই ফ্লাট থেকে এক তরুণীকে বের করে আনে। এসময় সোহেল রানা কৌশলে পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে যায়।
পরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ওই তরুণী জানান, তার জন্মনিবন্ধনে ভুল রয়েছে, সেকারণে তিনি চেয়ারম্যানের কাছে এসেছেন। তবে স্থানীয়রা দাবি করেন, চেয়ারম্যান হিসেবে সোহেল রানা এখন পর্যন্ত শপথ গ্রহণ করেননি। আর তাই তার পক্ষে জন্মনিবন্ধন সংশোধন করাও সম্ভব নয়।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১১, ২০২১ | সময়: ৪:২০ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর