ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বামীকে বাঁচাতে অসহায় স্ত্রীর আকুতি

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি : 
আমি বড়ই অসহায়, আমাকে সাহায্য করার কেউ নাই। আমার ভিটামাটি যা ছিল, তাও শেষ। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বামীকে নিয়ে দিন কাটাচ্ছি। আমার স্বামীকে বাঁচাতে চাই। অর্থাভাবে আমার স্বামীর ভালো চিকিৎসা করাতে পারছি না। চেয়ারম্যান-মেম্বারদের বলেও কোন সাহায্য পাইনি। এমনকি সমাজসেবা অফিসে আবেদন করেও আবেদন বাতিল করে দিয়েছে।

 

 

একদিকে অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসা, অন্যদিকে সংসারের খরচ, আমি আর চলতে পারছি না। আমি সমাজের সকল বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে সাহায্যের আবেদন করছি। আপনাদের একটু সাহায্য পেলে আমি আমার অসুস্থ স্বামীকে বাঁচাতে পারবো। এমন-ই ভাবে কান্না জড়িতে কন্ঠে কথাগুলো বলছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের কান্তিনগর গ্রামের অসুস্থ আব্দুল লতিবের স্ত্রী রমিশা বেগম।

 

 

অসুস্থ আব্দুল লতিবের স্ত্রী রমিশা বেগম আরো জানান, প্রায় ৪ বছর আগে তাঁর স্বামী দাঁতের রোগে ভূগছিলেন। সে সময় দাঁতের এক চিকিৎসকের কাছে গেলে ওই চিকিৎসক ভুল চিকিৎসার কারণে দাঁতে ইনফেকশন হয়ে যায়। ধীরে ধীরে ডান গাল ফুটো করে ক্যান্সারে রূপ নেয়। দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসার করেও তাঁর ক্যান্সার ভালো হয়নি। তাঁর চিকিৎসার করতে গিয়ে আমার ভিটেমাটি ও অর্জিত অর্থ সব শেষ। এখন স্বামীকে নিয়ে অসহায় হয়ে পড়ে আছি। স্বামীকে বাঁচাতে তাঁর উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। উন্নত চিকিৎসার জন্য আমার কাছে কোন টাকা নেই। বিধায়, বাধ্য হয়ে ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বামীকে বাঁচাতে দেশ-বিদেশ সকল বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে আর্থিক সাহায্যের জন্য অনুরোধ করছি। আমার সাথে ০১৭৭৯ ৬১৭০৯৩ (অসুস্থ লতিবের স্ত্রী রমিশা) এই নম্বরে যোগাযোগ করে সাহায্য পাঠানো জন্য অনুরোধ করছি।

 

এব্যাপারে মোবারকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মাহামুদুল হক হায়দারী মিঞা বলেন, আমার ইউনিয়নে এমন একটি ব্যক্তি ক্যান্সারে আক্রান্ত, আমার জানা ছিলো না। আপনাদের মাধ্যমে জানলাম। আমার সাধ্যমত তাঁকে সাহায্য করবো। পাশাপাশি আমিও সকল বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ করছি আপনারা এই অসহায় অসু¯’ ব্যক্তিকে আর্থিকভাবে সাহায্য করতে এগিয়ে আসুন।

সানশাইন / শামি

 


প্রকাশিত: নভেম্বর ১, ২০২৩ | সময়: ৭:২১ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine

আরও খবর