সর্বশেষ সংবাদ :

লালপুরে যৌতুক না দেওয়ায় গোপনে স্ত্রীকে তালাক

লালপুর প্রতিনিধি: নাটোরের লালপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন, বিনা অনুমতিতে দ্বিতীয় বিয়ে ও স্ত্রীকে গোপনে তালাক দিয়ে তার সঙ্গে অবৈধ ভাবে সংসার করায় রাকসা উচ্চ বিদ্যালয়ের ওয়ালীউল্লাহ নামের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার স্ত্রী। স্ত্রীর করা নারী শিশু নির্যাতন মামলায় ওই শিক্ষক বর্তমানে অস্থায়ী জমিনে এসে তার আত্মীয় স্বজনদের দিয়ে নানাভাবে হুমকী দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সুমিতা সুলতানা নামের ওই গৃহবধু। সুমিতা সুলতানার দাবী, গোপনে তালাক দেওয়ার পরও প্রায় তিন মাস ঘর সংসার করেছে ওয়ালিউল্লাহ। ওয়ালীউল্লাহ উপজেলার মাঝগ্রামের মহাসিন আলীর ছেলে।
শনিবার উপজেলার টিটিয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলনে সুমিতা সুলতানার লিখিত বক্তব্যে বলেন, ১৪/১৫ বছর আগে সম্পর্ক করে ওয়ালীউল্লাহ এর সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর ঘর জামাই থেকে পড়াশুনা শেষ করে ওয়ালীউল্লাহ রাকসা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার চাকুরী নেন। এর পরে ওয়ালীউল্লাহ এক মেয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে তাকে বিয়ে করে। এর প্রতিবাদ করলে সুমিতার উপর অমানুষিক নির্যাতন শুরু করে এবং ১৬ লাখ টাকা যৌতুক, বাড়ি ও জমি লিখে দিতে বলে। পরে তার বিরুদ্ধে লালপুর থানায় মামলা করলে পুলিশ তাকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করে। শর্ত সাপেক্ষ কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে সুমিতা সুলতানাকে পুনরায় যৌতুকের দাবি করে ওয়ালীউল্লাহ। যৌতুক না পেয়ে আবারও সুমিতা সুলতানাকে শারীরিক নির্যাতন করলে গত ৭ মার্চ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্রুনাল আদালতে মামলা করেন সুমিতা সুলতানা। এতে পুলিশ পুনরায় তাকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করে। পরবর্তীতে ওয়ালীউল্লাহ অস্থায়ী জামিনে আসে। এদিকে ওয়ালীউল্লাহর আইনজীবি জানায় গত বছরের ৫ ডিসেম্বর সুমিতা সুলতানাকে তালাক দিয়েছে ওয়ালীউল্লাহ।
সুমিতা সুলতানা বলেন, ‘যদি তালাক দিয়েই থাকে তাহলে ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত আমার সঙ্গে ঘর সংসার করলো কেন?’ এর প্রতিকার চাওয়ায় স্বামী ওয়ালীউল্লাহই উল্টো সুমিতা সুলতানার বিরুদ্ধে লালপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছে। এখন ওয়ালীউল্লাহ ও তার আত্মীয় স্বজনরা নানাভাবে সুমিতা সুলতানার পরিবারকে হুমকী দিচ্ছে। ফলে তিনি দুই সন্তান নিয়ে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন। দুয়ারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম লাভলু জানান, বিষয়টি নিয়ে ইতিপূর্বে একাধিক সালিশি বৈঠক হয়েছে। কিন্ত ওয়ালিউল্লাহ তার প্রতিশ্রুতি রক্ষা কনেনি। বরং আদালতের রায়ও অমান্য করেছে।


প্রকাশিত: এপ্রিল ২, ২০২৩ | সময়: ৫:৪৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ