Daily Sunshine

বাকী ম্যাচগুলো নিজেদের জন্য খেলতে চান মাহমুদউল্লাহ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেটের এবারের আসরে এখনো পর্যন্ত হয়েছে ২২টি ম্যাচ। এখনো গ্রুপ পর্বের বাকি রয়েছে ২০টি ম্যাচ। কিন্তু এরই মধ্যে বিদায় ঘণ্টা প্রায় বেজে গিয়েছে খুলনা টাইটানসের। কেননা নিজেদের প্রথম সাত ম্যাচের মধ্যে মাত্র ১টিতে জিততে পেরেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

বাকী থাকা ৫ ম্যাচের সবকয়টি জিতলে এবং পাশাপাশি বেশ কিছু জটিল সমীকরণ মেলাতে পারলেই কেবল প্লে’অফে খেলতে পারবে খুলনা। কিন্তু কার্যত আশা শেষ তাদের। তাই টুর্নামেন্টে বাকি থাকা ম্যাচগুলো নিজেদের জন্য হলেও ভালো খেলতে চান খুলনার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

শনিবার চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে মাহমুদউল্লাহর ফিফটির পরেও ৩২ রানে হেরেছে খুলনা। ম্যাচটি জিততে পারলে সমীকরণটা নিজেদের পক্ষেই রাখতে পারতেন মাহমুদউল্লাহরা। তা হয়নি বিদায় এখন প্লে’অফ খেলার সুযোগ অনেকটাই কমে গিয়েছে বলে মনে করেন রিয়াদ।

ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে খুলনার অধিনায়ক বলেন, ‘রান করার পরেও যদি দল হারে, তাহলে রান করাটা কাজে আসে না। আমাদের জন্য এখন প্লে অফের সমীকরণ আরও কঠিন হয়ে গেল। এখন খুবই কম সুযোগ আছে আমাদের। আমাদের এখন নিজেদের জন্যে হলেও ভালো খেলা উচিত।’

ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে এবারের আসরের সর্বোচ্চ এবং বিপিএল ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১৪ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিলন চিটাগং। কার্যত সেখানেই শেষ হয়ে যায় ম্যাচ। খুলনার অধিনায়কের কণ্ঠেও শোনা যায় একই কথা। তার মতে ১৯০-২০০ রানের মধ্যে আটকে রাখতে পারলে ভালো সুযোগ থাকত খুলনার।

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আপনি যখন ২১৪ রানের বিশাল লক্ষ্য অতিক্রম করবেন তখন আপনার প্রথম বল থেকেই ভালোভাবে খেলা উচিত। উইকেট ব্যাটিং উপযোগী ছিল অবশ্যই। কিন্তু আমাদের উচিত ছিল তাঁদের ১৯০-২০০ রানের মধ্যে বেঁধে রাখা।’

সানশাইন অনলাইন/এন এ

জানুয়ারি ২০
১১:১০ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

ডিগ্রী থাকলেও মিলছেনা যোগ্য চাকরি

শাহ্জাদা মিলন: বাংলাদেশের অন্যতম বিভাগীয় শহর রাজশাহী। সিল্কসিটি, আমের রাজধানী হিসেবে পরিচিত সারা দেশে রাজশাহী। তবে এসব পরিচয় ছাপিয়ে রাজশাহী ‘শিক্ষা নগরী’ হিসেবে সবচেয়ে বেশি পরিচিত। অসংখ্য নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে এখানে। এর সুফলে রাজশাহীতে বছর বছর বাড়তে ডিগ্রিধারী মানুষের সংখ্যা। তবে সেই অনুপাতে বাড়ছে না কর্মসংস্থান। রাজশাহীতে রয়েছে রাজশাহী

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত