Daily Sunshine

ঘুষ না পেয়ে পা ভেঙে দেয়া সেই এএসআই হাফিজকে ক্লোজ করা হলো

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার এএসআই হাফিজকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে থানার একটি সূত্র । তার বিরুদ্ধে সোমবার ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবির করে না পাওয়ায় সাইদুল ইসলাম নামে স্থানীয় এক ব্যাক্তির পা ভেঙে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার সন্ধ্যায় রাজশাহীর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের আদেশের প্রেক্ষিতে তাকে থানা থেকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়।

প্রসঙ্গত, রাজশাহীর দুর্গাপুরে ২০ হাজার টাকা ঘুষ চেয়ে না পেয়ে সাইদুল ইসলাম নামের এক ব্যাক্তির পা ভেংগে দেয় দুর্গাপুর থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) হাফিজ। এতেই ক্ষান্ত হননি এএসআই হাফিজ, ছেলের সামনেই সাইদুল ইসলামকে অমানবিক নির্যাতন করা হয় বলে অভিযোগ করেন সাইদুল ইসলাম। সোমবার রাত ১০ টার দিকে এ ঘটনার পর দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় সাইদুল ইসলামকে।

ভুক্তভোগী সাইদুল ইসলাম অভিযোগ করেন, তার ছেলের বউ তাদের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। ওই অভিযোগের কারণে সোমবার রাতে তার ছেলে আসাদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে থানায় না নিয়ে হোজা অনন্তকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়।

ছেলেকে ছাড়াতে সেখানেই যান সাইদুল ইসলাম। এ সময় ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে এএসআই হাফিজ। ঘুষের টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এএসআই হাফিজ। এসময় ৯’শ টাকা পকেট থেকে বের করে এএসআই হাফিজকে দেন সাইদুল ইসলাম। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অভিযুক্ত এএসআই হাফিজ বাঁশ দিয়ে ছেলের সামনেই তার বাম পায়ে আঘাত করে। এতে সাইদুল ইসলামের বাম হাটু ভেংগে যায়।

আরো পড়ুন

দুর্গাপুরে ঘুষ না পেয়ে ছেলের সামনেই বাবার হাটু ভাঙলো পুলিশ

/র

জুন ১৩
১০:৫৬ ২০১৯

আরও খবর