Daily Sunshine

ভোটার উপস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ আওয়ামী লীগের

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১০ মার্চ ৮৭টি উপজেলায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপ। যদিও বিএনপিসহ বেশ কয়েকটি দল নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় ভেতরে ভেতরে বেশ বিব্রতকর অবস্থায় রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। তাই নির্বাচনের দিন ভোটারদের সরব উপস্থিতি নিশ্চিত করতে চায় তারা। এজন্য তৃণমূলে নির্দেশনা দিয়েছে দলটি।

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, একটি গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। এজন্য দলটির বিদ্রোহী প্রার্থীদের প্রতি যথেষ্ট নমনীয় অবস্থানে রয়েছেন তারা। ভোটের দিন যাতে ভোটাররা কেন্দ্রে যান এমন লক্ষ নিয়ে এগোচ্ছে দলটি। একই সাথে নির্বাচন বর্জনকারী দলগুলো নির্বাচনকে নিয়ে কোন ধরণের ইস্যু তৈরি করতে না পরে সেজন্য তৎপর রয়েছে দলটি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরেই বর্তমান সরকার এবং নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অধীনে আর কোন নির্বাচনে অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দলগুলো। তবে উপজেলা নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার পর ঐক্যফ্রন্টের সেই সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন বিএনপির অনেক নেতারা। আর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সেই সব বিএনপি নেতাদের অংশ নেয়াকে ট্রাম্পকার্ড হিসেবে ব্যবহার করতে চান।

আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের একাধিক নেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রধান টার্গেট ভোটারদের কেন্দ্রে উপস্থিত নিশ্চিত করা। আর বিভিন্ন উপজেলায় যাতে নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করে এজন্য বিদ্রোহী প্রার্থীদের চাপ প্রয়োগ করা থেকে বিরত রয়েছে দল। তাছাড়া ভোটার উপস্থিতি সর্বোচ্চ নিশ্চিত করতে তৃণমূলে বার্তা দেয়া হয়েছে।

এদিকে বেশিরভাগ উপজেলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। নৌকার প্রার্থীসহ প্রত্যেক প্রার্থীই তাদের কর্মী সমর্থক নিয়ে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন উপজেলায় সকাল থেকে শুরু করে মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে। মাঝে মাঝে দেখা যায় বিভিন্ন প্রার্থীর সমর্থকদের ছোট ছোট মিছিল।

উপজেলা নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা চাই আসন্ন উপজেলা নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে। কারণ ঐক্যফ্রন্ট দলগতভাবে নির্বাচনে অংশ না নিলেও আমাদের কাছে খবর আছে তাদের নেতাকর্মীরা স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। এরই মধ্যে তৃণমূলে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে উৎসব বিরাজ করছে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেয়ায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করছেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সহযোগিতা করছেন জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন নেতারা। যদিও এর ফলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হচ্ছে, তবে ভোটের পরে সেটি দূর হয়ে যাবে বলে মনে করছেন তারা।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এবার ৪৮১টি উপজেলায় মোট পাঁচ ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ধাপের নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হবে ১০ মার্চ। এছাড়া দ্বিতীয় ধাপে ভোট গ্রহণ করা হবে আগামী ১৮ মার্চ, তৃতীয় ধাপে ২৪ মার্চ এবং চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ। আর পঞ্চম ধাপের ভোট গ্রহণ করা হতে পারে পবিত্র রমজানের পর ১৮ জুন।

সানশাইন অনলাইন/এন এ

মার্চ ০৮
১৭:৪০ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা

আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা

সানশাইন ডেস্ক : আধুনিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পূর্ণাঙ্গ আধুনিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক দেশ গড়ে তুলতে তিনি একের পর এক পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করে চলেছেন। উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশের জন্য অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি তিনি দেশকে আধুনিক অবকাঠামো সমৃদ্ধ করে তুলছেন। তার হাত ধরেই বাংলাদেশ প্রবেশ করেছে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ পেলেন ২২০৪ জন

৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ পেলেন ২২০৪ জন

সানশাইন ডেস্ক : ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল আজ মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এই বিসিএসে ২ হাজার ২০৪ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করেছে পিএসসি। ফলাফল পিএসসির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে ফলপ্রত্যাশীদের অপেক্ষার পালা শেষ হলো। পিএসসি সূত্র জানায়, আজ বিকেলে বিশেষ সভা শেষে পিএসসি ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত

বিস্তারিত