রাবির এক শিক্ষার্থীর হামলায় আরেক শিক্ষার্থী হাসপাতালে

রাবি প্রতিনিধি

পূর্ব শত্রুতার জেরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থীর হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে আরেক শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার জমিদার নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীকে খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

 

আহত শিক্ষার্থীর নাম লোকমান হেকিম। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর নাম আনাস রোমান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র।

 

হামলার শিকার লোকমান হেকিম বলেন, ‘আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে আমি আঙিনায় হাঁটাহাঁটি করছিলাম। তখন আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আনাস, তার ভাই জাহেদ, মা শিল্পী, বাবা লুৎফর রহমান আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। তখন আমি দৌঁড়ে বাড়িতে চলে আসি। এরপর তারা বাড়ির ভেতরে এসে আমার মাথায় ছয়টি কোপ দেয়। বুকে এবং পিঠেও কোপ দেয়। এ ঘটনায় এগিয়ে আসলে আমার ছোট ভাইয়ের মাথায়ও দুইটি কোপ দেয়। মায়ের গুরুতর জখম হয়।’

 

আহত লোকমানের বড় ভাই সাজেদুল ইসলাম স্বাধীন জানান, আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি। খুব দ্রুতই মামলা করবো।

 

একই এলাকার বাসিন্দা মাসুদ বলেন, দুই পরিবারের মধ্যে পূর্বের থেকেই ঝামেলা ছিল। পূর্বের শত্রুতার জের ধরে এ আক্রমণ করা হয়েছে। লোকামান গুরুতর আহত। তার মাথায়, বুকে এবং পিঠে গুরুতর জখম হয়েছে। মাথায় দুই জায়গা মিলে ২১ টি সেলাই করা হয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে আনাস রোমানকে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

 

এ বিষয়ে দিনাজপুর খানসামা উপজেলার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, ‘আমরা এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ না পাওয়া পর্যন্ত আমরা কিছু করতে পারবো না। ভুক্তভোগীর বড় ভাইয়ের সাথে কথা হয়েছে। তাকে থানায় এসে লিখিত অভিযোগ করার পরামর্শ দিয়েছি।’

সানশাইন / শামি


প্রকাশিত: মে ১২, ২০২২ | সময়: ৫:৩৬ অপরাহ্ণ | Daily Sunshine