Daily Sunshine

বাঘায় দলীয় তিন প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল, বিদ্রোহীদের সাথে সম্পর্ক থাকবে না

Share

নুরুজ্জামান,বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় তিনটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার শেষ দিন অনেকেই মনোনয় পত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে সরকারি দল আওয়ামীলীগ থেকে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া নৌকার তিন মাঝি এক সাথে মনোনয়ন পত্র জমা দেন । এ সময় তাদের সাথে ছিলেন উপজেলা আ’লীগের নেতৃতবৃন্দ। এর আগে বাঘা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রায় তিন হাজার মানুষেরে উপস্থিতিতে তাঁরা একটি সমাবেশ করেন। ঐ সমাবেশে উপজেলা আ’লীগের পক্ষ থেকে হুশিয়ারী দিয়ে বলা হয়,যারা আ’লীগ করার পরেও সতন্ত্রী প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন-তারা অতিসত্বর মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন। তা না হলে আগামী ছয় ডিসেম্বরের পর থেকে দলের সাথে আপনাদের কোন সম্পর্ক থাকবে না।

সরেজমিন লক্ষ করা গেছে, আজ দুপুরে নিজ-নিজ ইউনিয়ন থেকে দলীয় প্রার্থীদের সাথে আসা হাজার-হাজার কর্মী সমর্থকরা উপজেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে বাঘা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত হন। এ সময় তাদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন তিন ইউনিয়ন আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী তিনজন সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে- আড়ানী ইউনিয়নের এনামুল হক, বাউসার জাহিদ হোসেন ও চকরাজাপুরের আব্দুস সালাম। তারা আওয়মী সমর্থীত উপস্থিত হাজার-হাজার জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা মনোনয়ন চেয়ে ছিলাম। কিন্তু পাইনি। এতে আমাদের কোন দু:খ নেই। দলীয় প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যাদের মনোনীত করেছেন আমরা সকলে একযোগে তাদের জন্য কাজ করে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবো।

অপর দিকে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, জেলা আ’লীগের সদস্য রোকনুরজ্জামান রিন্টু, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম মন্টু ও আ’লীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু বলেন, যারা নিজেদের আ’লীগ দাবি করেন তারা নৌকার বাইরে কখনোই ভোট দিবেন না। কারণ নৌকা উন্নয়নের প্রতিক। নৌকা স্বাধীনতার প্রতিক। তাঁরা স্থানীয় সাংসদ ও পর-পর তিনবার নির্বাচিত গনমানুষের নেতা এবং বর্তমান সরকারের মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের উদৃতী দিয়ে বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত জানতে পেরেছি, বাউসায় নুর মোহাম্মদ তুফান এবং চকরাজাপুরে আজিজুল আজম আওয়ামীলীগ করা সত্বেও তারা সতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন পত্র উত্তোলন করেছেন।

তাদেরকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রতিনিধি হিসাবে আমরা উপজেলা আওয়ামীলীগ মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয়ার জন্য অনুরোধ করেছি। এর পরেও যদি তারা আমাদের কথা না রাখেন, তাহলে আগামী ৬ ডিসেম্বর এর পর থেকে তাদের সাথে দলের কোন সম্পর্ক থাকবে না।

সমাবেশে আশরাফুল ইসলাম বাবুল বলেন, বিএনপির কুলাঙ্গার তারেক জিয়া দেশের বাইরে পালিয়ে আছে। তারা ভোট করবে না বলে ঘোষনা দেওয়ার পর তাদের দোষর জামাত-শিবিরকে সাথে করে সতন্ত্র হিসাবে মনোনয় পত্র জমা দিচ্ছেন। আমি ঐ সকল পরাজিত শক্তির উদ্দেশ্যে বলতে চাই, যারা স্বাধীনতার শত্রু তাদের ভোট করার কোন অধিকার নেই।

সমাবেশ শেষে উপজেলা আ’লীগের নেতৃবৃন্দরা দলীয় তিন প্রার্থীকে সাথে করে উপজেলা নির্বাচন অফিসে যান এবং পর্যায় ক্রমে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। এর আগে দলীয় নেতা কর্মীরা বাঘার ঐতিহাসিক হযরত শাহদৌলার মাজার জিয়ারত করেন বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মজিবুল আলম বলেন, বাঘার তিনটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন ২৫ নভেম্বর ,২৯ নভেম্বর মনোনয়ন বাছাই, আপিল দায়ের ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর এবং প্রতিক বরাদ্দ ৭ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে । এরপর অত্যান্ত কঠোর ও কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন।

নভেম্বর ২৫
১৮:২৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]