Daily Sunshine

পারিলা ইউনিয়নকে রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠায় সর্বোচ্চ করার জন্য প্রস্তুত : ফাহিমা বেগম

Share

স্টাফ রিপোর্টার
রাজশাহী জেলার একমাত্র নারী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ফাহিমা বেগম। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি পবা উপজেলা পরিষদে নির্বাচন কমিশন অফিসে তিনি দলীয় নেতাকর্মিদের নিয়ে তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেন। আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে সারাদেশে ১০০৭ টি ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ধাপে রাজশাহীর পবা-মোহনপুরে ১৪টির মধ্যে ১৩ টি ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জমা দান শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার উপর ভরসা রেখেছেন। তিনি গতবারও নৌকার প্রতীক পেয়েছিলেন। কিন্তু  স্থানীয় কিছু নেতারা গতবার নারী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাওয়ায় তাকে মন থেকে মেনে নিতে পারেননি। তাই সাথে থাকলেও গোপণে অন্য পার্থীদের হয়ে কয়েকজন কাজ করেছিলেন। এছাড়া স্থানীয় এমপির সার্বিক সহায়তার কিছুটা ঘাটতি থাকায় সেবার জিততে পারেননি।

এবার পরিবেশ ভিন্ন। পবা মোহনপুর আসনের এমপি এবার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন। তাই শতভাগ জয় ছাড়া আমি অন্য কিছু ভাবছিনা।

রাজশাহী জেলার এতো কাছে আমাদের পারিলা ইউনিয়ন এলাকা। অথচ আমাদের এলাকার রাস্তাঘাট কোন উন্নয়নের ছোয়া নাই। আমি এবার নির্বাচিত হলে দলমত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে কাজ করতে চাই। দেশের উন্নয়নের সাথে পারিলা ইউনিয়ন এলাকাকে এক করতে চাই।

বিদ্রোহীদের বিষয়ে তিনি বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দল থেকে যাকে মনোনয়ন দেয়া হবে ,তার পক্ষেই কাজ করতে হবে সবাইকে। এর বেশি কিছু বলতে চাচ্ছিনা। দলের ও দেশের স্বার্থে সবাইকে একজোট হয়ে কাজ করার জন্য অনুরোধ করছি। পারিলা ইউনিয়নকে রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠার জন্য সর্বোচ্চ কিছু করার জন্য প্রস্তুত তিনি বলে জানান।

উল্লেখ্য গত নির্বাচনে সাইফুল বারি ভুলু আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হিসেবে জয়লাভ করেন। এবারো তিনি মননোয়ন তুলেবেন বলে শোনা যাচ্ছে। অত্র ইউপিতে আরো একজন আওয়ামী লীগের পারিলা ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ডের সভাপতি মুরশেদ আলী। তিনিও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নিজেকে ঘোষণা দিয়েছেন বলে  স্থানীয় ভাবে জানা গেছে।

সানশাইন/ শামি

 

 

 

 

 

অক্টোবর ২৮
১৪:৩৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]