Daily Sunshine

সান্তাহারে ওষুধের দোকানে চাঁদাবাজি, ধরা খেলেন ভুয়া ডিবি পুলিশ

Share

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ওষুধের দোকানে চাঁদাবাজির সময় সুজন হোসেন (৩৫) নামের এক প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের উপহার টাওয়ার এলাকায় মেহেরুন নেছা ফার্মেসির সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত সুজন নাটোর লালপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের সেন্টুর ছেলে। এ সময় তার সাথে থাকা আরেক প্রতারক সান্তাহারের কথিত সাংবাদিক মিরু হাসান বাপ্পী কৌশলে পালিয়ে যায়। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মেহেরুন নেছা ফার্মেসির স্বত্বাধিকারী শফিকুল ইসলাম ভুট্টু বলেন, উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের পোঁওতা গ্রামের জনৈক মনছুর আলীর ছেলে কথিত সাংবাদিক মিরু হাসান বাপ্পী ওই প্রতারক সুজনকে ডিবি সাজিয়ে সোমবার রাতে তার দোকানে নিয়ে আসেন। এরপর তার দোকানে মাদক জাতীয় ওষুধ বিক্রি করা হয় এমন অভিযোগ তুলে নানা ধরনের ঝামেলা শুরু করেন। একপর্যায়ে তিনি বিরক্ত বোধ করেন এবং ঝামেলা এড়াতে তাদের ৫০০ টাকা দিয়ে বিদায় করেন। পরের দিন মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে ফের তারা দুজন এসে ৫ হাজার টাকা দাবী করেন। টাকা না দিতে না চাওয়ায় গ্রেপ্তারের ভয় দেখান। এ সময় প্রতারক বাপ্পী ও সুজনের আচরন সন্দেহ জনক হওয়ায় তিনি পরিচয় পত্র দেখতে চান। তারা সেটি দেখাতে সক্ষম না হওয়ায় বাপ্পী কৌশলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় এবং সুজনকে আটক করা হয়।
সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে সুজনকে অটক করে নিয়ে আসা হয়েছে। তবে সুজনের সাথে থাকা আরেক প্রতারক মিরু হাসান বাপ্পীকে আটক করা যায়নি। প্রতারকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

অক্টোবর ২৬
২৩:০৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]