Daily Sunshine

শঙ্কা নিয়েই বাজারে আসছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম

Share

এ কে এস রোকন, শিবগঞ্জ: আগামী ২ জুন মঙ্গলবার বাংলাদেশের বৃহৎ আমবাজার কানসাটে উদ্বোধন করা হবে রপ্তানিযোগ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম। পাশাপাশি জেলার অন্যতম আমবাজার গোমস্তাপুরের রহনপুর ও ভোলাহাটেও আম বেচাকেনা শুরু হবে একই দিন। তবে করোনার কারণে আম সংশ্লিষ্টরা অনেকটায় হতাশাগ্রস্থ।
এদিকে বাগানে আম পাড়া আর তা বাজারজাতকরণে বাজারগুলোকে স্বাস্থ সম্মত করতে স্থানীয় প্রশাসন কয়েক দফা বৈঠকের পর আম সংশ্লিষ্টদের আম বাজারজাতকরণে সবরকম সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে। প্রশাসনের দেয়া ১৪ দফা মেনে আমবাজারে আম বাজারজাতকরণের জন্য চলছে জোর প্রস্তুতি।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, এবছর জেলায় প্রায় ৩৩ হাজার ৩৫ হেক্টর আমবাগানের ২৬ লাখ ২৪ হাজার ৮৯০টি আমগাছে এবছর আমচাষ হচ্ছে। আর আমের উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার টন। জেলায় বর্তমানে গোপালভোগ, ক্ষিরসাপাতসহ বিভিন্ন গুটিজাতের আম পরিপক্কতা পেতে শুরু করেছে।
সুত্রটি আরও জানায়, গোপালভোগ জাতের আম পূর্ণাঙ্গরুপে পরিপক্কতা পেলেও জুনের ১ম সপ্তাহের পর ক্ষিরসাপাতসহ অন্যান্য গুটি জাতের আম পরিপূর্ণ পক্কতা পেলে ঐসব আমপাড়া শুরু করবে আমচাষীরা। যেসব আম পেকে গেছে সেসব আম আনুষ্ঠানিকভাবে মঙ্গলবার বাজারজাত করার উদ্যোগ নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।
উদ্ধোধন করবেন শিবগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দীন আহমেদ শিমুল। এসময় জেলা প্রশাসক এ জেড এম নুরুল হকসহ স্থানীয়সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, আম ব্যবসায়ী সমিতি, আড়তদার সমিতিসহ আম সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত থাকবেন। তবে করোনা পরিস্থিতিতে বাজারজাত করণে প্রতিকূল প্রভাবের আশংকায় আম ব্যবসায়ীরা।
আড়ৎদার ফারুক হোসেন জানান, এবছর করোনার কারণে বাইরে থেকে কোন ক্রেতা অন্যন্যবারের মত আগ্রহ দেখাচ্ছে না। তাদের আশংকা করোনার কারণে বহিরাগত ক্রেতাদের কোয়ারেনটাইনে পাঠিয়ে দেয়া হলে তাদের মধ্যে ভীতির সৃষ্টি হবে। সেসাথে রয়েছে পরিবহন সমস্যা।
তরুণ উদ্যোক্তা ও আম ব্যবসায়ী শহিদুল হক হায়দারি জানান, ঘুর্ণিঝড় আম্পান আমবাগানের অনেক ক্ষতি করলেও এর প্রভাবে সাতক্ষীরাসহ দেশের অন্যান্য জেলার আমবাগানের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তাই এ জেলার আম সংশ্লিষ্টদের জন্য প্রশাসন অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারলে এবার আমের ভাল দাম পাবার আশা রয়েছে। আর আমের ক্রেতা না পেলে আমচাষীদের লোকসান গুনতে হতে পারে। এছাড়া পরিবহন আর বাজারজাত সঠিকভাবে করতে না পারলে অনেক ব্যবসায়ী পুঁজি হারানোর ভয়ে আছেন।
আম আৎদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক টিপু জানান, সরকারী নির্দেশনা মেনে সকল আড়তের সামনে হাত ধোয়া,পিপি, মাস্কসহ সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। তাই আম বাজার থেকে করোনা সংক্রামণের কোন আশংকা নেয়।
তবে তিনি প্রশাসনের কাছে আমবাজারজাতকরণ পরিবহন ও বাইরের ক্রেতাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জে অবস্থানের জন্য অনূকুল পরিবেশ দাবী করেন। তিনি আরও জানান, গত বছর কানসাট বাজার হতে প্রায় ৯’শ কোটি টাকার আম বিক্রয় হয়েছে। ঘুর্ণিঝড় আম্পানের কারণে বাগানের প্রায় ২০% আম পড়ে যাওয়া ও করোনার প্রভাবে এবার বিক্রি কম হতে পারে।
তবে আম বাজারজাতকরণে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন যে পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে তা যদি বাস্তবায়িত হলে ব্যবসায়ীরা লাভের মুখ দেখবে। অন্যথায় ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন আমচাষী ও আমব্যবসায়ীরা।
এদিকে আম বাজারজাতকরণে ব্যবসায়ীরা যাতে কোন সমস্যার সম্মুখীন না হয় সেবিষয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন।
এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল আকতার জানান, বহিরাগত ক্রেতাদের শিবগঞ্জ ও কানসাটে থাকার জন্য অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টিসহ সকল আড়তগুলোকে স্বাস্থ্য বিধি মানার জন্য বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। স্থানীয় আবাসিক হোটেলগুলোকেও স্বাস্থ্য সম্মত পরিবেশ তৈরীর নিদের্শনা দেয়া হয়েছে। তিনি জেলা প্রশাসনের ১৪ দফা মেনে আম সংশ্লিষ্টদের সকল শংকা দুর করে নির্ভয়ে ব্যাবসা করার আহবান জানিয়েছেন।
এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তাজকির-উজ-জামান বলেন, জেলার আমকে ব্রান্ডিং করার জন্য জেলা প্রশাসন কাজ করছে। এরই মধ্যে সচিবালয়ে জেলার আমের বাজার তৈরী করার কাজ চলছে।
তিনি জানান, বিভিন্ন জেলার আম ব্যবসায়ীরা জেলার আমবাজারে এসে যাতে নির্বিঘ্নে আম ক্রয় করতে পারে, সেব্যাপারে যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন। আম বাজারজাত ও পরিবহণে যাতে কোন সমস্যার সৃষ্টি না হয় সে বিষয়েও বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।
অন্যদিকে কানসাটের পাশাপাশি জেলা সদরের সদরঘাট ও তহাবাজার, গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর বাজার ও ভোলাহাটের আমবাজারগুলোতে যাবতীয় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

মে ৩০
০২:৫৯ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বর্ষার সাজে রাজশাহী, সড়ক বিভাজনে রঙ্গনের শোভা

বর্ষার সাজে রাজশাহী, সড়ক বিভাজনে রঙ্গনের শোভা

সানশাইন ডেস্ক : বর্ষার প্রকৃতিতে এখনও রাজশাহী নগরে হাজারো ফুলের সমারোহ। গ্রীষ্মের ফুল হলুদ সোনালু কিংবা বেগুনি জারুল ও লাল টুকটুকে কৃষ্ণচূড়ার রক্তঝরা হাসি এখনও যে কারোই নজর কাড়ছে। মাঝে মাঝে ঝড়ো বৃষ্টিতে এসব ফুল ঝরে রাজপথ করছে রঙিন। চলতি করোনাকালে বাইরে তেমন মানুষজন নেই। তাইবলে থেমে থাকেনি প্রকৃতি। রাজশাহী

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ পেলেন ২২০৪ জন

৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ পেলেন ২২০৪ জন

সানশাইন ডেস্ক : ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল আজ মঙ্গলবার প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এই বিসিএসে ২ হাজার ২০৪ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করেছে পিএসসি। ফলাফল পিএসসির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে ফলপ্রত্যাশীদের অপেক্ষার পালা শেষ হলো। পিএসসি সূত্র জানায়, আজ বিকেলে বিশেষ সভা শেষে পিএসসি ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত

বিস্তারিত