Daily Sunshine

রাজশাহীতে চল্লিশ হাজার পরিবারকে দেয়া হচ্ছে খাদ্য সহায়তা

Share

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে বাড়ির বাহির যেতে না দেয়ায় দিন আনে দিন খায় অর্থাৎ খেটে খাওয়া দুঃস্থ ও গরীব মানুষ বিপাকে পড়েছে। এসব মানুষের কথা চিন্তা করে পবা উপজেলায় রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য ও পবা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ১৫শ’ দুঃস্থ ও গরীব পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ উদ্বোধন করা হয়েছে।
সোমবার দুপুরে উপজেলার দর্শনপাড়া ইউনিয়নের বিলনেপালপাড়া চাষি রহিম বক্স একাডেমি মাঠে রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক প্রধান অতিথি থেকে এসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক বলেন, রাজশাহী জেলায় ৪০ হাজার ৪শ’ পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণের কাজ চলছে। জেলা ও উপজেলার তৃণমুল পর্যায়ে খেটে খাওয়া মানুষ ও দুঃস্থদের মাঝে কয়েকদিন থেকে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। এই সংকট পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তারা ত্রাণ সামগ্রী দিচ্ছেন।
তিনি বলেন, গরীব ও দুঃস্থ যদি এমন হয় কেহ থাকেন ত্রাণ পাননি তবে তাদেরকে স্থানীয় ইউপি সদস্য, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইসচেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং জেলা প্রশাসনে জানালেও ত্রাণ সামগ্রী পৌছে যাবে। তবু কেহ যেন ঘর থেকে না বের হয় এবং করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাসহ সচেতন ও সতর্কতামূলক পদক্ষেপগুলো মেনে চলেন। শেষে তিনি এলাকার বিত্তবানদের এসব মানুষের পাশে থাকার আহবান জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, পবা সহকারি কমিশনার ভূমি আবুল হায়াত, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আরজিয়া বেগম, দর্শনপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুল হাসান রাজ, ইউপি’র সদস্য গোলাম মুর্ত্তুজা, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আমিন সিদ্দিকী প্রমুখ। বিতরণকৃত প্রতি প্যাকেজে ছিল ১০ কেজি চাল, মশুর ডাল এক কেজি, লবন এক কেজি, আধা কেজি ভোজ্য তেল ও একটি সাবান।
এছাড়াও পবা উপজেলা আটটি ইউনিয়ন ও দু’টি পৌরসভায় ৪০ হাজার কেজি চাল বিতরণ চলছে। পাশাপাশি উপজেলা প্রশাসন থেকে করোনা ভাইরাস বিস্তার ও সংকট এড়াতে পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রয়েছে।

মার্চ ৩১
০৫:০৭ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

চাকরি ছেড়ে পত্রিকা করেছিলেন সাখাওয়াত হোসেন

চাকরি ছেড়ে পত্রিকা করেছিলেন সাখাওয়াত হোসেন

আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ: বিমানের এক সহযাত্রী বারবার মুখের দিকে তাকাচ্ছিলেন। তখন সাখাওয়াত হোসেনের সুপৌরুষ গড়ন। নেমেই সহযাত্রীটি পরিচিত হওয়ার জন্য হাত বাড়ালেন। তিনি একজন চলচ্চিত্র পরিচালক। তাঁর সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলেন। তখন সাখাওয়াত হোসেন কৃষি ব্যাংকের ব্যবস্থাপক। তাঁর ঝোঁক টেলিভিশন অনুষ্ঠানের উপস্থাপনার দিকে। এ জন্য মাঝে মধ্যে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

বিআইডব্লিউটিএ’কে পিপিই ও মাস্ক দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

বিআইডব্লিউটিএ’কে পিপিই ও মাস্ক দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাকালে দুর্গতদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে দেশের শীর্ষ শিল্প গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত বসুন্ধরা গ্রুপ করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় এবার নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)-কে পিপিই এবং মাস্ক হস্তান্তর করেছে। বুধবার (২০ মে) মতিঝিলে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেকের

বিস্তারিত