Daily Sunshine

ট্রলিতেই কলির জীবন

Share

রোজিনা সুলতানা রোজি : হাসপাতালের রোগী বহনকারী ট্রলির চাকা ঘুরলেই ঘুরে কলির জীবিকার চাকা। দৈনিক ৮ ঘন্টা পরিশ্রমের মজুরী হিসেবে পান মাত্র ৫০ টাকা। এছাড়া রোগীরা খুশি হয়ে ১০-২০ টাকা যা দেয় তাতে সংসার খরচ, মেয়ের বিয়েসহ ছেলের পড়াশুনা কোন রকমে চলে। এভাবেই প্রায় সাত বছর ধরে ট্রলির চাকার সাথেই ঘুরছে কলির জীবিকার চাকা।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রামেক হাসপাতালে কথা হয় কলির সাথে। তখন তিনি রোগীর ট্রলি বহন করছিলেন। সে অবস্থাতেই তিনি জানান, তার পুরো নাম নাজনীন রহমান কলি। বয়স চল্লিশ পেরিয়েছে। সবাই তাকে কলি বলেই ডাকেন। তিনি নগরীর লক্ষিপুর মহল্লার মৃত আবদুল বারীর মেয়ে। সাত বোন ও চার ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট। কলি যখন ৭ম শ্রেণীতে পড়াশুনা করতো তখন পরিবার থেকেই তার বিয়ে দেয়া হয়। ১৩-১৪ বছর সুখের সংসার জীবনে তার এক মেয়ে ও এক ছেলে হয়। কিন্তু সংসার নামক জীবন যুদ্ধে হেরে যায় কলি। স্বামী কলিকে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করে চলে যায়। তখন থেকেই তিনি ভাটাপাড়া এলাকায় একটি টিনশেড বাসায় ভাড়া থাকেন।
কলির স্বাভাবিক জীবন যাপন তখন দূর্বিসহ হয়ে উঠে। বাবা মারা যাওয়ায় ভাইদের কাছেও ঠাঁই হয়নি তার। এছাড়াও কলিও একজন শে^তী রোগী। হাত-পা ব্যাথা করে। বিশেষ রোগে তার শরীরে রক্তও পরিবর্তন করতে হয়েছে। চিকিৎসার জন্য তাকে তিনবার ভারতেও যেতে হয়েছে।
কলি জানান, তার চিকিৎসা, সংসার খরচ, মেয়ের বিয়েসহ ছেলের পড়াশুনার ভার বহনের জন্য দৈনিক মুজুরী ৫০ টাকা হিসেবে ধরেন হাসপাতালের রোগী বহনকারী ট্রলির হাতল। এতে রোগীরা খুশি হয়ে যা বকশিস দেয় তা দিয়ে এবং কখনো সমিতি থেকে লোন নিয়ে কোন রকমে সংসার চালাচ্ছেন এবং ছেলেকে পড়াশুনা করাচ্ছেন।
কলি আরো জানান, এভাবে কষ্ট করে ছেলের পড়াশুনা করাচ্ছেন। বর্তমানে তার ছেলে নুহিন-ফিল আল-আমিন জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ে ম্যানেজমেন্ট (ব্যবস্থাপনা) বিষয়ে স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র। দ্বিতীয় বর্ষের জন্য পরিক্ষার জন্য ফরম ফিলাপও করেছে কলির কষ্টের টাকায়।
এখন তার একমাত্র ভরসাই ছেলে। তার ধারনা, ছেলে পড়াশুনা করে ভাল মানুষ হতে পারলে হয়তো টিনের চালার ফাঁক দিয়ে তার জীবনে সুখের চাঁদটি উঁকি দিবে। সে আশায় সমানে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে যাচ্ছেন কলি।

অক্টোবর ২৫
০৪:০১ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ঈদুল ফিতর : গুরুত্ব ও তাৎপর্য

ঈদুল ফিতর : গুরুত্ব ও তাৎপর্য

ড. মোঃ আমিনুল ইসলাম : আরবী ঈদ শব্দটি ‘আওদ’ শব্দমূল থেকে উদ্ভূত। এর আভিধানিক অর্থ হল প্রত্যাবর্তন করা, বার বার ফিরে আসা। মুসলমানদের জীবনে চান্দ্র বৎসরের নির্দিষ্ট তারিখে প্রতি বছরই দুটি উৎসব বর্তমান! এই দিন দুটি সুনির্দিষ্ট সময়ে ফিরে ফিরে আসে। তাই দিন দুটিকে ঈদ বলা হয়। ফিতর শব্দের অর্থ

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

বিআইডব্লিউটিএ’কে পিপিই ও মাস্ক দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

বিআইডব্লিউটিএ’কে পিপিই ও মাস্ক দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাকালে দুর্গতদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে দেশের শীর্ষ শিল্প গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত বসুন্ধরা গ্রুপ করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় এবার নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)-কে পিপিই এবং মাস্ক হস্তান্তর করেছে। বুধবার (২০ মে) মতিঝিলে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেকের

বিস্তারিত