সর্বশেষ সংবাদ :

কালরাত স্মরণে রাজশাহীতে আলোর মিছিল, মোমবাতি প্রজ্জলন

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী জুড়ে সর্বস্তরের নাগরির, প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের পক্ষ থেকে যথাযোগ্য মর্যাদায় গণহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। ২৫ মার্চ দিবসটি উপলক্ষে কোথাও আলোচনা সভা আবার কোথাও মোমবাতি প্রজ্জলন, দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে।
নগর আ.লীগের আলো মিছিল : গণহত্যা দিবসে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে রাত সাড়ে ৭টায় কুমারপাড়াস্থ’ দলীয় কার্যালয় থেকে আলোর মিছিল বের হয়। মিছিলটি নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন শেষে রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সেখানে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর শপথ নেওয়া হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, রেজাউল ইসলাম বাবুল, ডা. তবিবুর রহমান শেখ, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আহ্সানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসলাম সরকার, মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, প্রচার সম্পাদক দিলীপ ঘোষ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, আইন সম্পাদক এ্যাড. মুসাব্বিরুল ইসলাম, বন ও পরিবেশ সম্পাদক রবিউল আলম রবি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ওমর শরীফ রাজিব, সাংস্কৃতিক সম্পাদক কামারউল্লাহ সরকার কামাল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডাঃ ফ ম আ জাহিদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম, সদস্য জহির উদ্দিন তেতু, আশরাফ উদ্দিন খান, শাহাব উদ্দিন, হাফিজুর রহমান বাবু, এ্যাড. শামসুন্নাহার মুক্তি,আব্দুস সালাম, মুজিবর রহমান, ইসমাইল হোসেন, বাদশা শেখ, আলিমুল হাসান সজল, খায়রুল বাশার শাহীন, মোখলেশুর রহমান কচি, মাসুদ আহম্মেদ প্রমুখ।
রাজশাহী কলেজের উদ্যোগ : রাজশাহী কলেজ যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচির মধ্যে শুক্রবার সকাল ১১টায় কলেজ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও বীর মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা: আব্দুল খালেক।
অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা: ওলিউর রহমান, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মো: ইব্রাহিম আলী। সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের নিজের স্মৃতিচারণ তুলে ধরেন। তিনি তাঁর স্মৃতিচারণায় বলেন বঙ্গবন্ধু এদেশের মানুষকে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করতে পেরেছিলেন বলেই বীর মুক্তিযোদ্ধারা প্রশিক্ষিত ও আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত পাক-হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রথমে প্রতিরোধ ও পরে বীরবিক্রমে যুদ্ধ করে তাদের পরাজিত করতে সক্ষম হয়।
তিনি রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ আশেপাশের এলাকার মুক্তিযুদ্ধকালীন নিজের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন দেশপ্রেম কোন মন্ত্র নয়; বরং নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনের মাধ্যমেই নিজেকে দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা যায়।

তাই তিনি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হওয়ার আহ্বান জানান। উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা: ওলিউর রহমান রহমান বঙ্গবন্ধুর সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্মের নিকট যথাযথভাবে তুলে ধরার আহ্বান জানান। সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা: আব্দুল খালেক বলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিচারণ আমাদের জ্ঞানকে আরো সমৃদ্ধ করবে। আলোচনা অনুষ্ঠানে উপ¯ি’ত থেকে স্মৃতিচারণ করার জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালের প্রতি তিনি গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। পরিশেষে অধ্যক্ষ মহোদয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে উপ¯ি’ত শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। সন্ধ্যায় কলেজ প্রশাসন ভবনের সামনের চত্বরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহিদদের স্মরণ করা হয়। রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানের সাথে সামঞ্জস্য রেখে রাত ৯:০১ মিনিটে ব্ল্যাক আউটের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচির সমাপ্ত হয়।
জেলা আ.লীগের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন : ২৫ মার্চ জাতীয় গণহত্যা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ। দিবসটিতে শহীদদের স্মরণে শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর অলোকার মোড়ে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের

সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ দারা। পবা মোহনপুর আসনের এমপি আয়েন উদ্দিন, জেলার আওয়ামী লীগের
সহ-সভাপতি মোঃ জাকিরুল ইসলাম সান্টু, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ এস. এম. একরামুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক এ.কে.এম. আসাদুজ্জামান আসাদ, এ্যাড আব্দুস সামাদ মোল্লা, মোঃ আলফোর রহমান, দপ্তর সম্পাদক প্রদ্যুৎ কুমার সরকার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অধ্যক্ষ মোঃ মোজাম্মেল হকসহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এদিকে গণহত্যা দিবসে অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে আরো ছিল বাদ জুম্মা ও সুবিধামত সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মসজিদে দোয়া মাহফিল, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ সকল ধর্মীয় উপসানলয়ে শহীদদের স্মরণে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা। এদিকে
আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের নানান কর্মসূচি রয়েছে। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগর ভবন ও সকল ওয়ার্ড কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সকাল ১০.০০টা ভূবনমোহন পার্ক শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ, বাদ যোহর ও সুবিধামত সময়ে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক সোনাদিঘী জামে মসজিদ, নগরভবন ওয়াক্তিয়া মসজিদসহ প্রত্যেক ওয়ার্ডের মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ সকল ধর্মীয় উপসানলয়ে শহীদদের আত্মার মাগফেরাতসহ দেশ ও জাতির শান্তি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা করা হবে। বিকেল ৪টায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে প্রীতি ফুটবল ম্যাচঃ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা, রাজশাহী। সন্ধ্যা ৭টায় লালন শাহ পার্ক মুক্তমঞ্চে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।
রাসিকের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন : ২৫ মার্চ জাতীয় গণহত্যা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। দিবসটিতে শহীদদের স্মরণে শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
কর্মসূচিতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসএম মাহবুবুল হক পাভেল, ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস সোবহান লিটন, ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ, সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর উম্মে সালমা বুলবুলি, আয়েশা খাতুন ও মাজেদা বেগম, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, সচিব মোঃ মশিউর রহমান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী নূর ইসলাম তুষার, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ মোঃ মামুন, নগর পরিকল্পনাবিদ বনি আহসান, পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকর্তা সৈয়দ মাহমদু-উল-ইসলাম, ত্রাণ কর্মকর্তা সৈয়দ জুবায়ের হোসেন মুন, জনসংযোগ কর্মকর্তা মোস্তাফিজ মিশু, সহকারী প্রকৌশলী আসিফুল হাবিব নিবিড়, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফররুখ আহমেদ শিশির, কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজমির আহম্মেদ মামুন সহ কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গণহত্যা দিবসে অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে আরো ছিল বাদ জুম্মা ও সুবিধামত সময়ে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক সোনাদিঘী জামে মসজিদ, নগরভবন ওয়াক্তিয়া মসজিদসহ প্রত্যেক ওয়ার্ডের মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ সকল ধর্মীয় উপসানলয়ে শহীদদের স্মরণে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা। রাত ৯.০০ টা থেকে ৯.০১ মিনিট পর্যন্ত ০১ মিনিটের জন্য মহানগরী এলাকায় প্রতীকি ব্ল্যাক-আউট (কেপিআই ও জরুরি স্থাপনা ব্যতীত)।
আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগর ভবন ও সকল ওয়ার্ড কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সকাল ১০.০০টা ভূবনমোহন পার্ক শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ, বাদ যোহর ও সুবিধামত সময়ে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক সোনাদিঘী জামে মসজিদ, নগরভবন ওয়াক্তিয়া মসজিদসহ প্রত্যেক ওয়ার্ডের মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ সকল ধর্মীয় উপসানলয়ে শহীদদের আত্মার মাগফেরাতসহ দেশ ও জাতির শান্তি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা করা হবে। বিকেল ৪টায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে প্রীতি ফুটবল ম্যাচঃ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা, রাজশাহী। সন্ধ্যা ৭টায় লালন শাহ পার্ক মুক্তমঞ্চে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।


প্রকাশিত: মার্চ ২৬, ২০২২ | সময়: ৬:১২ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ