সর্বশেষ সংবাদ :

বাঘায় বাংলা মদের কারখানা উচ্ছেদ, সত্তর লিটার মদসহ নারী আটক

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: নিজ বাড়ীর মধ্যে স্বামী-স্ত্রী মিলে চালাচ্ছিলেন একটি বাংলা মদের কারখানা। ব্যবসা ভালই জমে উঠেছিলো। হটাৎ করেই পুলিশের হানা। এরপর ৭০ লিটার মদসহ আটক হলেন স্ত্রী রুপালী বেগম। এ সময় স্বামী নজরুল ইসলাম পালিয়ে গেলেও মামলা থেকে অব্যাহতি পাননি। রবিবার সকালে উপজেলার পলাশী ফতেপুর এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়।
বাঘা থানা পুলিশের একটি মুখপত্র জানান, রবিবার সকাল ১০ টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পালাশী ফতেপুর এলাকার নজরুল শিকদারের (৫৫) বাড়িতে সঙ্গীয় ফোর্স সহ অভিযান পরিচালনা করেন বাঘা থানার এসআই প্রজ্ঞাময়।
এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় বাড়ির মালিক ও মদ তৈরীর কারিগর নজরুল ইসলাম। ঘটনার এক পর্যায় পুলিশ ঐ বাড়ি থেকে বাংলা মদ তৈরীর সরঞ্জাম এবং ৭০ লিটার মদ-সহ আটক করেন নজরুলের স্ত্রী রুপালী বেগমকে (৪৫)।
স্থানীয় লোকজন জানান, নজরুল শিকদার এবং তার স্ত্রী রুপালী বেগম মিলে অনেকদিন ধরে বাংলা মদ তৈরী করে আসছেন। অনেকেই এদের ভয়ে এতোদিন মুখ খুলেনি। তবে আকষ্মিক ভাবে পুলিশ ঘটনা স্থালে এসে মদ তৈরীর কারখানা উচ্ছেদ সহ তৈরীর সরঞ্জাম জব্দ করায় জনমনে স্বস্তি ফিরেছে। অনেকেই পুলিশকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী দু’জনকে অভিযুক্ত করে মাদক দ্রব্য আইনে একটি মামলা রেকর্ড করে রুপালী বেগমকে রবিবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। একই সাথে নজরুল শিকদারকে প্রেফতাদের চেষ্টা চলছে।


প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২ | সময়: ৮:০৫ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ