Daily Sunshine

পবায় ছাত্রলীগ নেতার হাত ভাঙ্গলেন রাবি কর্মচারি

Share

স্টাফ রিপোর্টার: তুচ্ছ ঘটনায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাজশাহীর পবার মোহনপুর গ্রামে ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে জখম করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারি নকির উদ্দিন। এব্যাপারে চারজনকে আসামী করে আরএমপি কাটাখালী থানায় মামলা হয়েছে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, মোহনপুর গ্রামের মধ্যপাড়ার মোয়াজ্জেম হোসেনের ছেলে হরিয়ান ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক শিহাব শাহরিয়ার ৫ জানুয়ারী দুপুরে নিজ দোকান থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে একই এলাকার জাকির হোসেনের ছেলে হৃদয় (২২), নকির উদ্দিনের ছেলে সবুজ আলী (২৪), মৃত সেকাম মন্ডলের ছেলে ও জামায়াতের রোকন নকির উদ্দিন (৫০) ও জাকির উদ্দিন (৪৮) দেশীয় অস্ত্র রড ও শাবল নিয়ে শিহাব শাহরিয়ারের ওপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এক সময় শিহাব মাটিতে পড়ে যায়। তখন তারা শিহাবের ওপর এলাপাথারিভাবে মারপিট করে। এতে রড ও শাবলের আঘাতে শিহাবের বামহাত ভেঙ্গে যায়। শিহাবের চিৎকারে লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছালে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তারা চলে যায়। স্থানীয়রা শিহাবকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।
এব্যাপারে শিহাব শাহরিয়ার বাদি হয়ে অভিযুক্ত চারজনকে আসামী করে আরএমপি কাটাখালী থানায় মামলা করেন। শিহাব শাহরিয়ার বলেন, জমির নকশার অজুহাতে নকির উদ্দিন জনগণের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এতে আমাদের বাড়ির প্রধান পথও বন্ধ হয়ে যায়। রাস্তার ব্যাপারে এরআগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। এছাড়াও তারা সবসময় আমাদের বাড়ির আশে পাশে বাড়ির আবর্জনা ও মরগী ও মাছের নাড়িভূড়ি ফেলে রাখে। এতে ব্যাপক দুর্গন্ধ বের হয়। যাতায়াতে জনগণকে দুর্ভোগ পোয়াতে হয়। নকির উদ্দিন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মালির চাকরি করেন। পাশাপাশি তিনি জামায়াতের রোকনের দায়িত্ব পালন করছেন বলে শিহাব শাহরিয়ার জানান।

জানুয়ারি ১৫
০৬:৪১ ২০২২

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]