Daily Sunshine

জোড়া সেঞ্চুরির পর ওপেনিংয়ে খাওয়াজা, পাঁচে হেড

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: মধুর কিন্তু জটিল এক সমস্যার সমাধান বের করেছে অস্ট্রেলিয়া। এক ম্যাচে দুই সেঞ্চুরির পরও জায়গা হারানোর শঙ্কা কেটে গেছে উসমান খাওয়াজার। কোভিড মুক্ত হয়ে একাদশে ফিরছেন ট্রাভিস হেডও। এই দুই বাঁহাতিকেই জায়গা দিতে বাদ পড়েছেন আরেক বাঁহাতি মার্কাস হ্যারিস।
অ্যাশেজের হোবার্ট টেস্টে ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস শুরু করবেন খাওয়াজা। হেড ব্যাট করবেন পাঁচ নম্বরে। সিডনি টেস্টে খাওয়াজার অসাধারণ ব্যাটিং কঠিন পরীক্ষায় ফেলে দেয় অস্ট্রেলিয়ার টিম ম্যানেজমেন্টকে। হেড কোভিড পজিটিভ হওয়ায় ওই টেস্টে সুযোগ পান খাওয়াজা। আড়াই বছর পর দলে ফিরেই তিনি দুই ইনিংসে করেন সেঞ্চুরি। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও পান। তবে তখনই তিনি বলেছিলেন, এমন পারফরম্যান্সের পরও পরের টেস্ট খেলা নিয়ে নিশ্চিত নন তিনি। কারণ, হেড তো সুস্থ হয়ে ফিরছেন!
এই সিরিজ দিয়েই অস্ট্রেলিয়া দলে ফেরেন হেড। প্রথম টেস্টে ১৫২ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে তিনি ছিলেন দলের জয়ের নায়ক। দ্বিতীয় টেস্টেও করেন ফিফটি। পরে কোভিডের কারণে সিডনিতে খেলতে পারেননি। সুস্থ হওয়ায় নিজের জায়গা ফিরে পাওয়ার দাবি তো তিনি করতেই পারেন!
শেষ পর্যন্ত ব্যাটিং অর্ডার ওলট-পালট করে সমস্যার সমাধান করেছে অস্ট্রেলিয়া। পাঁচে নেমে খাওয়াজা জোড়া সেঞ্চুরি করলেও তাকে তুলে আনা হচ্ছে ওপরে। ওপেনিংয়ের অভিজ্ঞতা তার আছে, পারফরম্যান্সও দুর্দান্ত। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টেস্টে ৭ ইনিংসে ওপেন করে সেঞ্চুরি করেছেন দুটি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গোলাপি বলের টেস্টে ওপেন করে সেঞ্চুরিও করেছেন। এবার হোবার্ট টেস্টও গোলাপি বলে।
সাম্প্রতিক সময়ে অবশ্য খাওয়াজা ওপেন করেনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত ফর্ম তাকে অস্ট্রেলিয়া দলে ফিরিয়ে এনেছে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সবশেষ ২২ ইনিংসে তিনি ৬টি সেঞ্চুরি করেছেন, ব্যাটিং গড় প্রায় ৬৬। এই সময়টায় কখনোই চার নম্বরের ওপরে ব্যাট করেননি। তবে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের বিশ্বাস, খাওয়াজার কোনো সমস্যা হবে না ওপেনিংয়ে।
“উজির (খাওয়াজা) ওপেন করা নিয়ে আমি আত্মবিশ্বাসী। সে ক্লাস ব্যাটসম্যান, ব্যাটিং অর্ডারের যে কোনো জায়গায় ব্যাট করতে পারে। এমনকি এই গ্রীষ্মের শুরুতেও, সে যখন স্কোয়াডের অংশ ছিল, নির্বাচকদের দিক থেকে এবং অধিনায়ক হিসেবে আমিও মনে করেছি, এক থেকে ছয় নম্বর পর্যন্ত যে কোনো পজিশনে সে ব্যাট করতে পারে।” “কাজেই তাকে ওপেনিংয়ে আনা হচ্ছে, বাকি সবাই নিজেদের জায়গায় থাকবে। প্রথম কয়েক ম্যাচের পারফরম্যান্সে ট্রাভিস হেড আসলে ৫ নম্বর জায়গাটা নিজের করে নিয়েছে।”
হেড ও খাওয়াজার পারফরম্যান্সে কপাল পুড়েছে হ্যারিসের। তার জায়গা নিয়ে অবশ্য প্রশ্ন ছিল অ্যাশেজ শুরুর আগে থেকেই। প্রথম চার টেস্ট খেলে আহামরি কিছু করতেও পারেননি তিনি। তবে ক্রমাগত আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠছিলেন, সেটির প্রতিফলন পড়ছিল পারফরম্যান্সে। মেলবোর্নে তার ৭৬ রানের ইনিংস দলের জয়ে রাখে বড় ভূমিকা। এখন তাকে আবার অপেক্ষায় থাকতে হবে পরবর্তী সুযোগের জন্য। ১৪ টেস্টের ক্যারিয়ারে এই নিয়ে তিনবার বাদ পড়লেন ২৯ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান।
অস্ট্রেলিয়ার একাদশের আরেকটি জায়গা নিয়ে এখনও অবশ্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। টেস্ট ক্যারিয়ারের অসাধারণ শুরু করা স্কট বোল্যান্ডকে উতরাতে হবে ফিটনেস পরীক্ষায়। পাঁজরে চোট পাওয়া পেসার বৃহস্পতিবার ট্রেনিংয়ে ভালোভাবেই সবকিছু করতে পেরেছেন। তবে শুক্রবার টেস্ট শুরুর সকালে আরেক দফা দেখে তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তিনি শেষ পর্যন্ত খেলতে না পারলে সুযোগ পাবেন জাই রিচার্ডসন।
চলতি সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে সুযোগ পেয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নেন রিচার্ডসন। পরে হালকা চোট সমস্যা থাকায় মেলবোর্নে তাকে না খেলিয়ে বোল্যান্ডকে সুযোগ দেওয়া হয়। বোল্যান্ড তা দুহাতে লুফে নিয়ে অভিষেকে করেন ইতিহাস গড়া বোলিং। পারফর্ম করেন পরের টেস্টেও। ২ টেস্টে ১৪ উইকেট নিয়ে রিচার্ডসনকে আর ফেরার সুযোগই দেননি তিনি। এখন তিনি শঙ্কায় আছেন চোট পেয়ে। মিচেল স্টার্ককে বিশ্রাম দেওয়ার আলোচনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত খেলছেন বাঁহাতি এই ফাস্ট বোলার।

জানুয়ারি ১৪
০৬:৩৯ ২০২২

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]