Daily Sunshine

রাজশাহীতে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়ায় রাজশাহীর চারঘাট, বাঘা ও দূর্গাপুর উপজেলার ১৫ ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল থেকেই ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো লক্ষ্যনীয়। কয়েকটি কেন্দ্রে মেম্বার প্রার্থীদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলেও শান্তিপূর্ণভাবে বোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রাজশাহীর তিন উপজেলার ১৫ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫০ জন, সংরক্ষিত নারি সদস্য ১৬০ ও সাধারণ সদস্য পদে ৫০৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মোট ১৪৬টি কেন্দ্রের ৯২১ টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হয়। ভোট কেন্দ্রেগুলোতে ভোটাররা যাতে নিবিঘ্নে ভোটদান নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সক্রিয় থাকতে দেখা গেছে। ভোটাররা সকাল থেকে লাইনে দাড়িয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।
রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটানিং কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। তেমন কোনো সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি।
রবিবার বেলা ১১ টার দিকে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের দিঘা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দেখা যায় ভোটারদের উপচেপড়া ভীড়। সেখানে নাতী রুদ্র হাসানের কোলে চড়ে ভোট দিতে এসেছেন শতবর্ষি নতিফুন বেওয়া। তিনি ভোট দিতে পেলে আনন্দ প্রকাশ করেন।
নতিফুন বেওয়া বলেন, জীবনের এই বয়সে এসে ভোট দিতে পেরে আনন্দিত। এই বয়সে ভোট দিতে পারব এমনটা আশা করিনি। বয়সের ভারে ঠিকভাবে কথা বলতে পারছেনা। তার বাড়ি বাউসা ইউনিয়নের ১ নম্বর দিঘা ওয়ার্ডের পুকুরপাড়া গ্রামে।
তিনি জানান, তার স্বামী মারা গেছেন ৬০ বছর আগে। জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে কতবার ভোট দিয়েছেন তা বয়সের ভারে জানাতে পারেনি নতিফন। দিঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্রে কর্মরত পুলিশ অফিসার আবদুর রউফ বলেন, অনেক বৃদ্ধ এসে ভোট দিচ্ছেন। যারা হাটতে পারছেনা তাদের সহযোগিতা করে ভোট নেওয়া হচ্ছে।
দিঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্রে প্রিজাইজিং অফিসার সিরাজুল ইসলাম বলেন, সুষ্ট সুন্দরভাবে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ভোটকেন্দ্রের পরিবেশ উৎসবমুখর বলে জানান তিনি।

ডিসেম্বর ২৭
০৭:০০ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]