Daily Sunshine

মান্দায় স্কুলছাত্রীর আত্মহননের প্ররোচনা মামলায় যুবক গ্রেপ্তার

Share

মান্দা প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার ঘটনার ছয়জনের বিরুদ্ধে আত্নহত্যা প্ররোচনার মামলা দায়ের করা হয়েছে। মৃত স্কুলছাত্রীর বাবা সলিম উদ্দিন শাহ বাদি হয়ে গতকাল রবিবার মান্দা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এরপর অভিযান চালিয়ে এক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত আসামীর নাম সাদ্দাম হোসেন (২৮)। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের কয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজ শাহের ছেলে।
মৃত স্কুলছাত্রীর বাবা সলিম উদ্দিন শাহ বলেন, মেয়ে বেবী আক্তারের সঙ্গে আসামী শামীম হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে মিথ্যা অভিযোগ তোলা হয়। এ অজুহাতে বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মেয়ে বেবীকে প্রতিবেশী মোজাফফর হোসেনের বাড়িতে কৌশলে ডেকে নেন আসামীরা। সেখানে একটি ঘরে আটকে রেখে আসামী সাদ্দাম হোসেন তাঁকে নির্যাতনসহ শ্লীলতাহানী করে। এ অপমান সইতে না পেরে ওই রাতেই সকলের অগোচরে বিষপান করে।
তিনি আরও বলেন, ‘আমার মেয়েকে আর কোনদিন ফিরে পাব না। তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সকল আসামীকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারসহ তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি করছি।’
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, স্কুলছাত্রী বেবীর মৃত্যুর ঘটনার তার বাবা সলিম উদ্দিন শাহ বাদি হয়ে মামলা করেন। মামলার পর অভিযান চালিয়ে সাদ্দাম হোসেন নামে এক আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে জেলহাজতে পাঠানো হবে।
উল্লেখ্য, উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের দীঘিরপাড়া গ্রামের চয়নুল ইসলামের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে এমন অজুহাত এনে স্কুলছাত্রীর নাম বেবী আক্তারকে (১৫) নির্যাতন ও শ্লীলতাহানী করা হয়।
এ অপমান সইতে না পেরে সে বিষপান করে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। মৃত বেবী আক্তার মান্দা সদর ইউনিয়নের খাগড়া উত্তরপাড়া গ্রামের সলিম উদ্দিন শাহের মেয়ে ও মান্দা এসসি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

ডিসেম্বর ২০
০৫:৪৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]