সর্বশেষ সংবাদ :

পরাজয় জেনেই বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিলো ওরা : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

নুরুজ্জামান, বাঘা: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও চারঘাট-বাঘার সাংসদ শাহরিয়ার আলম বলেন, পরাজয় যখন নিশ্চিত তখন ওরা এদেশের বুদ্ধিজীবিদের হত্যা করেছিলো। মঙ্গলবার সকালে বাঘা উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদ বুদ্ধিজীবিদের শ্রদ্ধা নিবেদন করে পুষ্পস্তবক অর্পন ও দোয়া শেষে উপজেলা পরিষদের সস্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালের ডিসেম্বর মাসে স্বাধীনতা যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে এসে পাকিস্থান বাহিনী যখন বুঝতে শুরু করে ওদের পক্ষে যুদ্ধে জয়লাভ করা আর কোন ভাবেই সম্ভব না, ঠিক তার ৩৬ ঘণ্টা পূর্বে তারা নবগঠিত বাংলাদেশকে সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও শিক্ষাগত দিক থেকে দুর্বল এবং পঙ্গু করার লক্ষ্যে পরিকল্পিত ভাবে দেশের শ্রেষ্ঠ সুর্য সন্তানদের নিজ-নিজ গৃহ হতে তুলে এনে নির্মম ভাবে নির্যাতনের পর হত্যা করে। আর তাদের এ কাজে সহায়তা করেন পাকিস্থানি বাহিনীর এ দেশীয় দোসর রাজাকার, আলবদর ও আল শামস বাহিনী।
শাহরিয়ার আলম বলেন, শহীদ বুদ্ধিজীবি হত্যার সাথে জড়িত অনেকেই দেশের বাইরে পলাতক রয়েছে। যারা আন্তর্জাতিক অপরাধের সাথে জড়িত তাদের কোন ক্ষমা নেই। ওরা বাঙ্গালী নামের কলঙ্ক।
তিনি বলেন, এতো কিছুর পরও বাংলাদেশ আজ সাবলম্বী। এদেশ বহির বিশ্বের দানের বাংলাদেশ নয়, এটি ৩০ লক্ষ প্রানের আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত দেশ। মন্ত্রী বলেন, আপনরা জেনে খুশি হবেন, নারীর ক্ষমতায়নে সারা বিশ্বে আমরা দশমতম স্থানে রয়েছি।
আমরা ২০২১ সালের মধ্যে এই দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত করতে চেয়েছিলাম। ইনশাল্লাহ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে জাতির পিতার সু-যোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেছেন।
তিনি আরো বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে লালন করে দেশের উন্নয়নে কাজ করি। আমাদের শপথ নিতে হবে, আমরা প্রত্যেকেই যেনো সেবক হয়ে মরতে পারি।
সভায় বক্তব্য রাখেন বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, মুক্তিযোদ্ধা জনাব আলী ও রয়েজ উদ্দিন এবং বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান।
উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসমলাম মন্টু, আ’লীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, বাঘা পৌর সভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, পাকুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, গড়গড়ির ইউপি চেয়ায়ম্যান রবিউল ইসলাম রবি ও মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সহ উপজেলা প্রশাসনের সকল দপ্তর প্রধান এবং সুশীল সমাজের নেত্রীবৃন্দ। এ কর্মসূচির আয়োজন করেন বাঘা উপজেলা প্রশাসন।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৫, ২০২১ | সময়: ৬:২৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ