Daily Sunshine

আদমদীঘিতে অটোস্ট্যান্ডে রেলের লাল পতাকা নিয়ে ক্ষুব্ধ চালকরা

Share

আদমদীঘি প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে সিএনজি চালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ডে রেল বিভাগ লাল পতাকা দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করার পর চালকদের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে চালকরা ডিজিটাল হোটেল স্টারের সামনে অটোরিকশা রেখে ব্যরিকেট দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়স্ত্রণ করে। সোমবার দুপুরে উপজেলার সান্তাহার স্টেশন রোডে ঘটনাটি ঘটে।
জানাযায়, উপজেলার সান্তাহার রেল স্টেশনের আধুনিকায়ন কাজের পরিদর্শনে এসে সিএনজি চালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ডে লাল পতাকা দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করেন রেল বিভাগের কর্মকর্তারা। কিছুক্ষণ পর অটোচালকরা জানতে পারে তাদের স্ট্যান্ড ডিজিটাল হোটেল স্টার ব্যাক্তিগত গাড়ি রাখার (পার্কিং) জন্য লিজ নিয়েছেন। খবরটি চালকদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে ডিজিটাল হোটেল স্টারের সামনে চালকরা অটোরিকশা দিয়ে ব্যরিকেট দেয়। খবর পেয়ে সান্তাহার ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়স্ত্রণ করে।
ডিজিটাল হোটেল স্টারের স্বত্বাধীকারি ফিরোজ আহমেদ চৌধুরী জানান, হোটেলের জন্য আমরা সিএনজি স্ট্যান্ডের জয়গা লিজ নেই নি। সিএনজি চালকরা আমাদের ভুল বুঝছেন।
অটোরিকশা মালিক সমিতির সভাপতি নুর ইসলাম জানান, সিএনজি স্ট্যান্ডের জায়গা হোটেলের পার্কিংয়ের জন্য লিজ নিয়ে দখল করা হচ্ছে এমন খবরে তারা উত্তেজিত হয়ে পড়েন। পরে ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে ক্ষুব্ধ চালকদের শান্ত করি।
সান্তাহার ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়স্ত্রনে আনার পর হোটেলের সামনে রাখা অটোরিকশাগুলো সরিয়ে নেয়া হয়েছে।
রেলওয়ের পাকশি বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট মো. নুরুজ্জামান মুঠোফোনে জানান, রেলওয়ের প্রয়োজনে সেখানে লাল পতাকা দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে। ওই জায়গাটি কাউকে ইজারা দেয়া হয়নি।

ডিসেম্বর ১৪
০৫:৫৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]