Daily Sunshine

মেয়র অপসারণে ১২ কাউন্সিলরের অনাস্থা

Share

স্টাফ রিপোর্টার : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণা দেয়ায় রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী পৌরসভার দুইবারের নির্বাচিত মেয়র আব্বাস আলীর অপসারণে অনাস্থা আনলেন কাউন্সিলররা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পৌরসভা ভবনের সভা কক্ষে কাউন্সিলরদের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আব্বাস আলীকে মেয়র পদ থেকে অপসারণের জন্য অনাস্থা প্রস্তাব আনের নারী কাউন্সিলর হোসনে আরা। পরে সর্বসম্মতিক্রমে অনাস্থা প্রস্তাব পাস হয়।
৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মজিদ জানান, তার সভাপতিত্বে কাউন্সিলরদের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে মেয়র অপসারণে অনাস্থা প্রস্তাব গ্রিহীত হয়। এর পর মেয়র আব্বাসকে অপসারণের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবর লেখা অনাস্থা প্রস্তাবের আবেদনে ১২ জন কাউন্সিলর স্বাক্ষর করেন। এর পর রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলা প্রশাসকের বাসভবনে গিয়ে আবেদন জমা দেয়া হয়। এ সময় ১০ জন কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন। অসুস্থ্য থাকার কারণে দুইজন আসেননি বলে জানান তিনি।
ঝাড়ু মিছিল : এর আগে বিকেলে রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল হয়েছে। পৌরসভার শতশত নারী পুরুষ ঝাড়ু হাতে এই মিছিলে অংশ নেন। মিছিল শেষে বিক্ষোভ সমাবেশ মেয়রের পদ থেকে তাকে অপসারণসহ দ্রুত গ্রেপ্তারের করে শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণা দেয়ায় কাটাখালী পৌরবাসী ব্যানারে এ ঝাড়ু মিছিলের আয়োজন করা হয়। শেষে বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পৌরসভা যুবলীগের আহ্বায়ক জনি ইসলাম।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সামা, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জহুরুল হক, সাবেক কাউন্সিলর মোতালেব মোল্লা, কাউন্সিল মাসুদ রানা, কাটাখালি পৌরসভা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক জহুরুল ইসলাম রিপন, কাটাখালি পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শরীয়তউল্লাহ সৈকত।
বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কাটাখালী পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনজুর রহমান, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বোরহান উদ্দিন রব্বানী, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার সাদাত, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মজিদ, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনামুল হক এবং নারী কাউন্সিলর আয়েশা বেগম।
নগর আ.লীগের সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও অবমাননাকর মন্তব্য করায় কাটাখালী পৌর মেয়র আব্বাস আলীকে গ্রেফকার ও দল থেকে আজীবন বহিস্কারের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন থকে এ দাবি করা হয়। এদিকে পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে আব্বাসের রিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ ও তার গ্রেফতার দাবি করেছেন রাজশাহী-৩ (পবা- মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন।
এর আগে নগর আওয়ামীগের সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন- রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। তিনি বলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কাটাখালী পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আব্বাস আলী’র ধৃষ্টতাপূর্ণ অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। যা ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে প্রচার হয়েছে। আমরা সকলেই জানি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালীর অনুভূতি ও আবেগের জায়গা। তাকে নিয়ে কটুক্তি ও অশোভন মন্তব্য করা রাষ্ট্র দ্রোহিতার শামিল।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে আব্বাসের কটুক্তি অবমাননাকর মন্তব্যে সারা দেশের মানুষের ন্যায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগর চরমভাবে মর্মাহত। তার ধৃষ্টতাপূর্ণ অশালিন মক্তব্যের প্রক্ষিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজশাহী মহানগর তাকে সংগঠনের পদ ও প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে আজীবন বহিষ্কারের পাশাপাশি তাকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় জাতীয় নেতা শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সন্তান এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন মহানগরীকে তিলোত্তমা হিসেবে গড়ে তুলেছেন। নগরীকে সজ্জিত করার লক্ষ্যে মূল প্রবেশ দ্বারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপনের পাশাপাশি সৌন্দর্য বর্ধনের পরিকল্পনা গ্রহন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নিয়ে আব্বাসের ঔদ্ধত্যপূর্ণ অবমাননার মন্তব্য জাতি সমর্থন করে না ।
সংবাদ সম্মেলনে ডাবলু সরকার বলেন, আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করলাম যখন জাতি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ এবং স্বাধীনতা ও বিজয়ের সূবর্ণজয়ন্তী পালন করছে, যখন জাতিসংঘের ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর ৭মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে ওয়াল্ড হেরিটেজ ‘বিশ্ব প্রামান্য দলিল’ হিসেবে স্বীকৃতির পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর নামে ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক পুরস্কার ঘোষণা করেছে, যখন সারাবিশ্ব বঙ্গবন্ধুর দর্শন নিয়ে তাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণা পরিচালনা করছে ঠিক সেই মুহূর্তে আওয়ামী লীগের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা খুনী মোসতাক এর প্রেতাত্মা আব্বাসের এ ধরনের ঘৃণ্য মন্তব্য দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ, রাজনৈতিক পরিবেশকে অস্থিতিশীল করাসহ দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও আওয়ামী লীগের ঐক্য বিনষ্ট করার অপচেষ্টার অংশ।
সংবাদ সম্মেলন থেকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ আব্বাসের মত কুচক্রী ও গোষ্ঠীর অশুভ তৎপরতা থেকে সতর্ক থাকার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।
এদিকে, কাঁটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাসকে আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকে আজীবনের জন্য বহিস্কার এবং দ্রুত তাকে গ্রেফতার নিশ্চিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার বিকেলে মহানগর আওয়ামী লীগের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে এ মিছিল বের হয়ে মিছিলটি শেষে সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে সমাবেশ করে দলটির নেতাকর্মীরা।
বিক্ষোভ মিছিলে ও সমাবেশে অংশগ্রহন করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টু, নগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী, নগর ছাত্রলীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ সিয়াম ও সাধারণ সম্পাদক ডা সিরাজুম মুবিন সবুজসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। এছাড়া কাটাখালী পৌর এলাকায় আব্বাসের বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল করে এলাকাবাসী।

নভেম্বর ২৬
০৫:১৬ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]