Daily Sunshine

হুমকিতে তটস্থ এক পরিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৌর নির্বাচনে বেপরোয়া ‘বিদ্রোহী’

Share

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন ঘিরে চরম উত্তেজনা ও উত্তাপ বাড়ছে। আগামী ৩০ নবেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনকে ঘিরে এখানে বিদ্রোহী প্রার্থী যুবলীগ থেকে বহিস্কৃত নেতা সামিউল হক লিটনের বিরুদ্ধে হামলা, হুমকি-ধামকির অভিযোগ উঠেছে। এরই মধ্যে নৌকা প্রতীকের কর্মীর উপর হামলার ঘটনাও ঘটেছে।
সর্বশেষ রবিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে জেলা শহরের শিবতলা কর্মকারপাড়ার নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিসে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে হামলায় গুরুতর আহত হয়ে এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কর্মী লুৎফর রহমান।
নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও কর্মীর উপর হামলার প্রতিবাদ ও এর প্রতিকার চেয়ে বুধবার আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোখলেসুর রহমান জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করেছেন। এছাড়াও সদর মডেল থানায় হামলার শিকার নৌকা প্রতীকের আমিন হোসেন নামের এক কর্মী এজাহার করেছেন।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হামলার শিকার নৌকা প্রতীকের কর্মীর এজাহার সূত্রে জানা যায়, রবিবার মোবাইলফোন প্রতীকের কর্মীরা বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র, লাঠিসোঁটা নিয়ে শিবতলা কর্মকারপাড়ার নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করতে এগিয়ে আসে। এসময় সেখানে থাকা নৌকা প্রতীকের কর্মীদের উপর হামলা করে তারা। লুৎফর রহমান জানায়, কোনকিছু বলার সুযোগ না দিয়েই তারা মারধর শুরু করে। নৌকার প্রার্থী মোখলেসুর রহমান বলেন, তিনি আচরণবিধি মেনে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তার পক্ষে জনগনের সাড়া দেখে বিদ্রোহী প্রার্থী বারবার হামলা করছে।
এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবলীগ থেকে বহিস্কৃত ও বিদ্রোহী প্রার্থী সামিউল হক লিটনের হুমকি-ধামকিতে তটস্ত এক চাল ব্যবসায়ী পরিবার। ওই নেতার ভয়ে তিনবছর ধরে এলাকাছাড়া ওই চাল ব্যবসায়ী। এখন তার পরিবারের সদস্যদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। হুমায়ুন কবির সোহাগ নামের ওই চাল ব্যবসায়ী এখন প্রকাশ্যে আসতে পারেন না।
অভিযোগে জানা যায়, চাল ব্যবসায়ী হুমায়ুন কবির সোহাগের কাছ থেকে টাকা পেতেন সামিউল হক লিটন। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সমাধানে টাকা পরিশোধ করে ওই ব্যবসায়ী। তবুও টাকার দাবিতে গত ৩ বছর ধরে চাল ব্যবসায়ী ও তার পরিবারের প্রতি অত্যাচার করে আসছে।
প্রভাবশালী এ নেতার ভয়ে পরিবারের লোকজনের সঙ্গেও দেখা করা তো দূরের কথা, মোবাইল ফোনে যোগাযোগ পর্যন্ত বিছিন্ন রেখেছেন। নিজে ও নিজের পরিবারকে বাঁচাতে দূরে চলে গেলেও রক্ষা হয়নি পরিবারের লোকজনের। এমনকি ওই চাল ব্যবসায়ীকে না পেয়ে তার বোনের কাছে টাকা দাবি করে নানা হয়রানি শুরু করেছে।
ভুক্তভোগী পরিবারের দাবি, ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে টাকা আদায় করতে চায় লিটন। এমনকি টাকা না দিলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার আরামবাগ এলাকার এ চাল ব্যবসায়ীর শরীর কেটে টুকরো টুকরো করে কুকুর দিয়ে খাওয়ানোর হুমকি দিয়েছেন লিটন।
ভুক্তভোগী চাল ব্যবসায়ীর বোন শবনম মুস্তারী অভিযোগ করেন নানাভাবে লিটন ও তার লোকজন বাসার সামনে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এমনকি বাড়িটিও নিজের সম্পত্তি বলে সাইনবোর্ড ঝলিয়ে দেয়। শবনম মুস্তারী জানান, লিটনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে নিজের বাড়ি বিক্রি করে এখন ভাইয়ের বাসায় অবস্থান করছেন তারা।
শবনম মুস্তারী বলেন, যুবলীগ নেতা সামিউল হক লিটনের কাছ থেকে তার ভাই চাল কিনে অন্য জায়গায় বিক্রি করতেন। কিছু টাকা নগদে, আর কিছু বাকিতে রেখে তারা ব্যবসা করতেন। সেসব চাল বিক্রি করে তারা লিটনকে বাকি টাকা পরিশোধ করতেন। কিন্তু ৩ বছর আগে হঠাৎ একবার চালের দাম কমে যায়। ব্যাপক লেকসানের আশঙ্কায় হুমায়ন ও তার পার্টনার চাল বিক্রি করতে বিলম্ব করছিল। এরপর তারা লোকসান করেই সেসব চাল বিক্রি করে দেয়। এরপর থেকেই ওই পরিবারে অত্যাচার শুরু করে লিটন।
তবে যোগাযোগ করা হলে ‘অভিযুক্ত’ সামিউল হক লিটন বলেন, আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নাই। তিনি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন, হুয়ায়ুনের কাছে তিনি টাকা পাবেন। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে মিমাংসাও হয়। তবে শেষ পর্যন্ত সে কোনো টাকা পরিশোধ করে নি। আমি নিজেই বরং অনেক ক্ষতির মুখে পড়েছি। ব্যাংকের কিস্তি টানতে হচ্ছে। তিনি বলেন, সামনে নির্বাচন তাই আমার ভোটের মাঠ ক্ষতি করার জন্য এমন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

নভেম্বর ২৬
০৫:১২ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]