Daily Sunshine

রাজশাহীতে জামায়াত-শিবিরের সক্রিয় ১২ কর্র্মী আটক

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীতে সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্র এবং নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য মিলিত হওয়া গোপন বৈঠক থেকে জামায়াত-শিবিরের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে।
শনিবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার আবু কালম সিদ্দিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাতে রাজশাহীর পবা থানার পালোপাড়া এলাকার মধ্যপাড়ার একটি বাড়িতে রাজশাহী মহানগরের পবা থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করে। তাদের কাছ থেকে জিহাদী বই, মিছিলের ব্যানার, জামায়াত-শিবিরের সদস্য ফরম ও চাঁদা আদায়ের রশিদ উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো- এয়ারপোর্ট থানা এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৫০), মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে কলিম উদ্দিন (৬৮), লোকমান আলীর ছেলে আব্দুল মতিন (২৫), আমসের আলীর ছেলে আব্দুল মতিন (২৫), মৃত বজলুর রহমানের ছেলে ফয়সাল আহমেদ (২০), মৃত মুনসুর রহমানের ছেলে আজাহার আলী (৩৫), মৃত আহামেদ আলীর ছেলে আবু বকর (৪২), আজিম উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রব (৩০), মো. কালামের ছেলে উজ্জল হোসেন (৩৪), মৃত আলীমুদ্দিনের ছেলে আব্দুল হালিম (৩৫), মৃত সোবাহানের ছেলে মো. ওবেদ (৫০), মৃত আরমানের ছেলে আবুল হোসেন (৬১)।
মহানগর পুলিশ কমিশনার আবু কালম সিদ্দিক বলেন, পবা থানার পালোপাড়া এলাকার মধ্যপাড়ায় মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে কলিম উদ্দিনের বাড়িতে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ও সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কাজে গোপন বৈঠকে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা মিলিত হয়েছে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার পবা থানা পুলিশ ও মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করে।
তিনি আরও বলেন, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জামায়াত-শিবিরের সক্রিয় কর্মী বলে স্বীকার করেছে। মহামারির পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড, অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করাসহ সরকারবিরোধী অপপ্রচার ও নাশকতার উদ্দেশ্যে তারা বৈঠকে মিলিত হয়েছিলো বলেও পুলিশ জানায়। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার পর দুপুরেই তাদের আদালতে চালান দেওয়া হয়েছে।

অক্টোবর ২৪
০৬:২৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]