Daily Sunshine

বাগমারায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রকে মারপিটের অভিযোগ

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাগমারা: বাবার সঙ্গে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে রাজশাহীর বাগমারায় এক ছাত্রকে পিটিয়ে আহত করেছেন এক শিক্ষক। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বাগমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বাগমরার হামিরকুৎসা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী মাসুদুর রহমান মেহেদী গত বুধবার বাবার সঙ্গে গ্রামের এক অনুষ্ঠানে দাওয়াত খেতে যায়। সেখান থেকে বাড়ী ফেরার সময় হামিরকুৎসা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক কামরুল হাসান তার কয়েকজন সহযোগী লোঠিসোটা নিয়ে ছাত্র মাসুদুর রহমান মেহেদী ও তার বাবা সাইদুর রহমানকে ধাওয়া করেন। প্রাণ ভয়ে তারা দৌঁড়ে পাশের একটি বাড়ীর গিয়ে আশ্রয় নেন। সেখানে গিয়ে তাদের মারপিট করা হয়। হামলাকারীরা ওই ছাত্রের বাবা সাইদুর রহমানকে বেদম মারপিট করে আহত করে বলে অভিযোগে দাবি করা হয়েছে। এর আগেও ওই শিক্ষার্থীর এ্যাসাইমেন্ট খাতা স্কুল থেকে হারিয়ে ফেলা হয়। এরপর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের হন্তক্ষেপে পুনরায় খাতা লিখে জমা দেয়া হয়। বাবার সঙ্গে শিক্ষক কামরুল হাসানের পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ছাত্র ও তার বাবাকে মারপিট করা হয় এবং ওই শিক্ষার্থীর এ্যাসাইমেন্ট খাতা হারিয়ে ফেলা হয় বলে ওই শিক্ষার্থীর পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।
অভিযুক্ত শিক্ষক কামরুল হাসান ছাত্রকে মারপিটের কথা অস্বীকার করে বলেন- তারাই আগে আমার উপর চড়াও হয়েছে ও আমাকে লাঞ্চিত করেছে। এছাড়া ওই ছাত্রের বাবার সঙ্গে আমার মামা-ভাগ্নে সম্পর্ক। কাজেই মামা-ভাগ্নের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ থাকতেই পারে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসানুজ্জামান বলেন- বিষয়টি খুবই দু:খজনক। তবে ঘটনাটি পারিবারিক এবং স্কুল ছুটি থাকা অবস্থায় বিদ্যালয়ের বাইরে ঘটেছে।
বাগমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারুক সুফিয়ান বলেন, শিক্ষক কর্তৃত ছাত্রকে মারপিটের ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

অক্টোবর ২৩
০৬:০৪ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]