Daily Sunshine

মান্দায় আ’লীগের মনোনয়ন ফরমে গুনতে হচ্ছে ২০ হাজার ৫’শ টাকা

Share

নওগাঁ প্রতিনিধি: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে (ইউপি) আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম বিক্রি উন্মুক্ত করা হলেও নওগাঁর মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে এ ফরম বিক্রির নামে অর্থ বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রত্যেক প্রার্থীর কাছে ‘আবেদন ফরম’ বিক্রির নাম করে ২০ হাজার ৫০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে এ অর্থ নেওয়ার কথা সংশ্লিষ্ট নেতারা স্বীকার করলেও তারা দাবী করছেন দলীয় কার্যালয় নির্মাণের জন্য নেওয়া হচ্ছে।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা আওয়ামী লীগের ছাপানো আবেদন ফরমটি গত বুধবার থেকে বিক্রি শুরু করা হয়েছে। মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাহিদ মোর্শেদ বাবুর ব্যক্তিগত চেম্বার থেকে ২০ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে আবেদন ফরম কিনতে হচ্ছে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীদের।
উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল দেওয়ান ও গোলাম রাব্বানী দুলাল নামে আওয়ামী লীগের এক কর্মী ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হতে ইচ্ছুক নেতাদের কাছে ওই বিশেষ আবেদন ফরম বিক্রি করছেন।
মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় নির্মাণ ও খরচের নামে এ পরিমাণ টাকা আদায় করা হচ্ছে। কিন্তু দলের পক্ষ থেকে টাকা গ্রহণের কোন রশিদ দেওয়া হচ্ছে না।
মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজিম উদ্দিন মণ্ডল বলেন, ‘উপজেলা আওয়ামী লীগের পার্টি অফিস নির্মাণের জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হচ্ছে এটা সত্য। সম্ভাব্য প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম কেন্দ্র থেকেই কিনবেন এবং সেখানেই জমা দেবেন। এ ব্যাপারে আমাদের কোনো ভূমিকা নেই।
তবে চেয়ারম্যানের নমিনেশন ঘিরে দলীয় উন্নয়ন কর্মকাণ্ড করার জন্য প্রার্থীদের আবেদন ফরম বিক্রি করে কিছু টাকা নেওয়া হচ্ছে। তবে এখান থেকে আবেদন ফরম নিতেই হবে এ ধরণের কোনো নির্দেশনা উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে দেওয়া হয়নি। সম্ভাব্য প্রার্থীদের কোনো ধরণের হুমকি-ধামকিও দেওয়া হয়নি।’
এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মালেক বলেন, ‘মান্দায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি আমার কানে এসেছে। বিষয়টি জানার পর আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারির কাছে এ বিষয়ে জানতে চেয়েছিলাম। পার্টি অফিসের ভবন নির্মাণের জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে ওই টাকা তুলছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
তবে আমার মতামত হচ্ছে, ভালো কাজ হলেও মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে এভাবে টাকা নেওয়া উচিত নয়। এতে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের ফোরামে আলোচনা করা হবে।’
দলীয় সূত্রে জানা যায়, বিগত দিনে ইউপি নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে কারা কারা দলীয় মনোনয়ন পেতে ইচ্ছুক তাদের কাছ থেকে আবেদন জমা নেওয়া হতো। পরে ঐক্যমত্য কিংবা কাউন্সিল ভোটের মাধ্যমে প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে তিনজনের নাম দলের নির্বাচনী মনোনয়ন বোর্ডের কাছে পাঠাতো জেলা আওয়ামী লীগ। ওই তালিকা থেকে মনোনয়ন বোর্ড একজনকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করতেন। কিন্তু এবার ইউপি নির্বাচনে দলীয় ফরম বিক্রি উন্মুক্ত করে দেওয়ায় দলের তৃণমূল সংগঠন থেকে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে তেমন ভূমিকা নেই।
উল্লেখ্য, আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় দফা ইউপি নির্বাচনে নওগাঁর মান্দা উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও বদলগাছী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল শনিবার থেকে আগামী বুধবার পর্যন্ত আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডি কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনতে পারবেন।

অক্টোবর ১৭
০৪:৪২ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]