Daily Sunshine

নৌকার প্রার্থী পরিবর্তন করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

Share

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মমিন আলীকে। কিন্তু তাঁর পরিবর্তে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম মাসুদ রানা মান্নান মনোনয়ন দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ ও সংবাদ সম্মলেন করা হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে উপজেলা খিদিরপুর গ্রামে দুই নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এর আগে আওয়ামী লীগের তিন শতাধিক নেতা-কর্মী স্থানীয় এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন। তাঁরা এসএম মাসুদ রানা মান্নানকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবিতে নানা স্লোগান দেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন এসএম মাসুদ রানা মান্নান। এতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন যারা দলের দুর্দিনে পাশে ছিল তাদেরকে মনোনায়ন দিয়ে পুরস্কিত করেন। কিন্তু যাকে মনোনায়ন দেওয়া হয়েছে তিনি একজন নব্য আওয়ামীলীগ। তিনি দলের দুর্দিনে ছিলেন না। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আন্দোলন সংগ্রামে তার সম্পৃক্তা নেই। তিনি চেয়ারম্যান হয়ে আওয়ামীলীগ হওয়ার চেষ্টা করেছেন।
তিনি আরো বলেন, কেন্দ্র থেকে তালিকা পাঠাতে বলা হয়েছিল। আমি উপজেলা আওয়ামীলীগকে সেই তালিকা বিষয়ে বারবার জানতে চাইলে আমাকে না জানিয়ে পাঠানো হয়েছে। এই নব্য আওয়ামীলীগের মনোনায়ন পরিবর্তন করে ত্যাগী নেতা কর্মীকে নৌকা প্রতিকের মনোনায়ন দেওয়া হয় দাবী জানাচ্ছি।
টিএম মাসুদ করিম বাকি বলেন, যদি এসএম মাসুদ রানা মান্নাকে দলীয় মনোনায়ন না দেওয়া হয় তাহলে সতন্ত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করা হবে। আমার যারা মনোনায়ন চেয়েছিলাম সবাই তার জন্য কাজ করব।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল কুদ্দুস মিয়াজী বলেন, যেহেতু গতবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে মমিন আলী বিজয়ী হয়েছে সেহেতু তার নাম এক নম্বরে পাঠানো হয়েছে। দুই নাম্বারে পাঠানো হয়েছে এসএম মাসুদ রানা মান্নানের নাম। গতবার নির্বাচনে যখন মমিনের নৌকা প্রতিকের নির্বাচন করেছিল এসএম মাসুদ রানা মান্নান এবং দলের ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তখন তাকে নব্য বলা হয়নি। এখন নির্বাচনের সময় তারা নৌকা প্রতিকের মনোনায়ন না পেয়ে নব্য বলছে। এতদিন কেন তারা বলেনি, কোথায় ছিল।
আব্দুল মমিন আলী বলেন, আমি ২০১১ এবং ২০১৬ সালে আওয়ামীলীগের সমর্থন নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। দলের দুর্দিনে পাশে থেকেছি। সম্মেলনের মাধ্যমে আমাকে ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়ীত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা মনোনায়ন না পেয়ে আমার নামে মিথ্যাচার করছে। তারা বিদ্রোহী হলেতো দলের কোন জায়গাতে থাকতে পারবেনা তাই এরকম কথা বলছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক তরিকুল ইসলাম রঞ্জু, জেলা সেচ্ছা সেবকলীগের সদস্য টিএম মাসুদ করিম বাকি, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইলিয়াস পারভেজ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুম পারভেজ রুবেল প্রমূখ।

অক্টোবর ১৩
০৬:০৭ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]

সর্বশেষ