Daily Sunshine

এনটিআরসিতে ভুল তথ্য : রাজশাহীর আরও পাঁচ স্কুল প্রধান হারালেন তিনমাসের এমপিও

Share

স্টাফ রিপোর্টার: এনটিআরসিএর দ্বিতীয় চক্রের শিক্ষক নিয়োগে শূন্যপদের ভুল তথ্য দেয়ার দায়ে রাজশাহীর পাঁচটি স্কুল প্রধানের তিনমাসের এমপিও কেটে রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। সম্প্রতি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে দায়ীদের এমপিও কেটে রাখার নির্দেশনা দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।
স্কুল ও প্রধানরা হলেন, গোদাগাড়ীর রাজাবাড়ী হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান, রাজশাহী কোর্ট একাডেমির প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম, বাগমারা বাগন্না উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরহাদ আলী, একই উপজেলার বাইগাছা বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন প্রামানিক, শহীদ মামুন মাহমুদ পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম মাওলা।
জানা গেছে, শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ পেয়েও কয়েক হাজার প্রার্থী যোগদান ও এমপিওভুক্ত হতে জটিলতায় পড়েছিলেন। মহিলা কোটা, নবসৃষ্ট পদে নিয়োগ, প্যাটার্ন জটিলতাসহ নানা সমস্যায় তারা এমপিওভুক্ত হতে পারছিলেন না। এসব জটিলতার মূলে ছিলেন শূন্যপদের ভুল তথ্য পাঠানো প্রতিষ্ঠান প্রধানরা। তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
এর আগে একই দায়ে রাজশাহীর তানোর উপজেলার কলমা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবুল কালাম আজাদের তিন মাসের এমপিও কেটে রাখার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্যে দেখা গেছে, ২০১৮ সালের ১২ জুন জারি হওয়া এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামোতে কিছু নতুন পদ সৃষ্টি করা হয়েছিল। বিধান ছিল, এসব পদে নিয়োগে মন্ত্রণালয় আলাদা আদেশ জারি করবে। এ পদগুলো নবসৃষ্ট পদ নামে বহুল পরিচিত। এসব প্রতিষ্ঠান প্রধান আদেশ জারির আগেই ২য় চক্রে শিক্ষক নিয়োগের চাহিদা হিসেবে সে পদগুলোকে শূন্য দেখিয়েছিলেন। ফলে, সুপারিশ পাওয়া প্রার্থীরা এমপিওভুক্ত হতে পারছিলেন না।

অক্টোবর ০৮
০৬:২৬ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]