Daily Sunshine

ব্যানার ছেড়ার প্রতিবাদে জামিল ব্রিগের বিক্ষোভ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : ভালো কাজ করতে গেলে বাধা আসেই। সকল বাধা অতিক্রম করে মানুষের জন্য আমাদের কার্যক্রম চলতেই থাকবে। মানবিক কাজে বাধা দিতে দেয়ালে লাগানো ব্যানার হয়তো ছিঁড়ে ফেলা যায়; কিন্তু বিপদের সময় জনগণের সহযাত্রী হয়ে অর্জিত ভালোবাসা কোনদিন মুছে ফেলা যায় না।
মঙ্গলবার বিকালে রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে শহিদ জামিল ব্রিগেডের উদ্যোগে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে বক্তারা এসব কথা বলেন। গত শনিবার রাতে শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে লাগানো করোনা সচেতনতামূলক ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার প্রতিবাদে সংগঠনটির সদস্যরা এই সমাবেশের আয়োজন করেন।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, শহিদ জামিল ব্রিগেড রাজশাহীর মানুষের জন্য কী করেছে তা নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। মানুষ যাদের বিপদের সময় কাছে পায়, সারাজীবন তারা তাদের পাশেই থাকে। ব্রিগেডের সদস্যরা মানুষের জীবন রক্ষায় এগিয়ে গেছে, বিনিময়ে তারা এক বুক ভালোবাসা পেয়েছে। যারা মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসেনি, তাদের পক্ষে এই ভালোবাসা অনুভব করা কঠিন।
আমরা কঠিন সময়ে ঘরে বসে থাকিনি। রাজনৈতিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে জনগণ ও সরকারকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু সম্প্রতিকালে লক্ষ্য করছি- দেশ ও সরকারবিরোধী একটি স্বার্থান্বেষী মহল মহল; যারা মানুষের কল্যাণ চায়না, তারা আমাদের কাজে বাধা প্রদান করার যড়যন্ত্র চালাচ্ছে। ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা সেই ষড়যন্ত্রেরই একটি অংশমাত্র।
রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারকে উদ্দেশ্য করে বক্তারা বলেন, মাননীয় পুলিশ কমিশনার, আপনি নিজেও শহিদ জামিল ব্রিগেডের সদস্যদের সাহসী ভূমিকার প্রশংসা করেছেন। এমন সংগঠন গড়ে তুলতে অন্যান্য রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনদের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছেন।
স্বেচ্ছায় সেবা দেওয়া কোন সামাজিক সংগঠন যদি বাধার মুখে পড়ে, তবে আগামীর তরুণরা যেকোন মহামারিতে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর বিষয়ে নিরুৎসাহিত হবে। এটি রাষ্ট্র ও সমাজের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। শহরজুড়ে যেহেতু সিসি ক্যামেরা আছে- সেহেতু কারা এই অপরাধ সংঘঠিত করলো ফুটেজ দেখে তাদের চিহ্নিত করা জরুরি। আমরা আশা করি, জনস্বার্থ বিবেচনায় আপনি এই উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।
রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অ্যাড. এন্তাজুল হক বাবুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, শহিদ জামিল ব্রিগেডের প্রধান সমন্বয়ক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, মনিটরিং সেলের সদস্য আব্দুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, সীতনাথ বণিক, সাঈদ চৌধুরী, মতিহার থানার সমন্বয়কারী আলমগীর হোসেন, কাশিয়াডাঙ্গা থানার সমন্বয়কারী শামীম ইমতিয়াজ, চন্দ্রীমা থানার সমন্বয়কারী শাহিদ হোসেন শিশির, বোয়ালিয়া পূর্বের সমন্বয়কারী শাহিন শেখ, বোয়ালিয়া থানার সাঈদ চৌধুরী ওহিদুর রহমান প্রমুখ।
দেশজুড়ে স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে করোনা সচেতনতা বাড়াতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে জামিল ব্রিগেডের উদ্যোগে ব্যানার টানানো হয়। শনিবার সকালে ব্যানার লাগানোর পরে ওইদিনই অধিকাংশ ব্যানার রাতের আঁধারে ছিড়ে ফেলে দুর্বৃত্তরা। রোববার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক ও নিউ গভ ডিগ্রি কলেজের সামনে রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার ছবি সম্বলিত অধিকাংশ ব্যানার ছিড়ে ফেলা হয়েছে। কোথাও কোথাও খুলে নেয়া হয়েছে।
এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হন শহিদ জামিল ব্রিগেডের সর্বস্তরের সদস্যরা। তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়ে গতকাল রোববার বিকালে বিবৃতি দিয়েছেন শহিদ জামিল ব্রিগেডের প্রধান উপদেষ্টা ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। বিবৃতিতে তিনিও এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের গ্রেফতার করার দাবি জানান। ঘটনাটির নিন্দা জানিয়ে সোমবার বিবৃতি দিয়েছেন রাজশাহীর প্রায় ৫০ জন আইনজীবী।

অক্টোবর ০৬
০৪:৫৭ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]