Daily Sunshine

প্রতিভায় পিছিয়ে বলেই পাকিস্তানের সঙ্গে খেলে না ভারত

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিকেটবিশ্ব জানে, রাজনৈতিক বৈরিতার কারণে বন্ধ ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক ক্রিকেট লড়াই। তবে আব্দুল রাজ্জাক বলছেন অন্য কথা। সাবেক পাকিস্তানি অলরাউন্ডার ও এখনকার এই কোচের মতে, পাকিস্তানের তুলনায় নিজেদের প্রতিভার দীনতা ফুটে উঠবে বলেই এই লড়াই থেকে দূরে আছে ভারত।
ভারত-পাকিস্তানের সবশেষ দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয়েছে ২০১৩ সালে। সেবার তিন ওয়ানডে ও দুই টি-টোয়েন্টির ছোট সফরে ভারতে গিয়েছিল পাকিস্তান। দুই দলের টেস্ট সিরিজ সবশেষ হয়েছে সেই ২০০৭ সালে। এখন স্রেফ আইসিসি টুর্নামেন্টগুলোয় দেখা হয় এই দুই দলের।
চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি এই দুই দলের লড়াই থমকে যাওয়ার রাজনৈতিক কারণই প্রকাশ্য। তবে রাজ্জাক দেখছেন ক্রিকেটীয় কারণও। পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলে রাজ্জাককে জিজ্ঞেস করা হয়, ‘পাকিস্তানের মতো পেস বোলার কিংবা অলরাউন্ডার কি ভারতের আছে নাকি এখানে তুলনাই চলে না?’ সাবেক এই পেস বোলিং অলরাউন্ডারের উত্তর, পাকিস্তান এখানে যোজন যোজন এগিয়ে।
“আমার মনে হয় না, পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াই করতে পারবে ভারত। পাকিস্তানের যে ধরনের প্রতিভা আছে, পুরোপুরিই ভিন্ন তা। ভারত ও পাকিস্তানের যে খেলা হচ্ছে না, আমার মনে হয় না তা ভালো কিছু। এটা খুব রোমাঞ্চকর ছিল এবং ক্রিকেটাররা কতটা চাপ নিতে পারে, তা দেখানোর সুযোগ ছিল এখানে।”
“এখন আর সেই সুযোগ নেই। আমার মনে হয়, এই লড়াই যদি চলতে থাকত, লোকে দেখতে পেত যে, পাকিস্তানের যে ধরনের প্রতিভা আছে, ভারতের তা নেই।” রাজ্জাক এমনকি ফিরে গেলেন অতীতেও। ইতিহাসের নানা বাঁক ঘুরে তুলনা করলেন দুই দেশের গ্রেট ক্রিকেটারদের। সেখানেও তিনি পাকিস্তানের ধারেকাছে দেখেন না ভারতকে।
“ভারতের দলও ভালো, অস্বীকার করছি না। তাদেরও ভালো ক্রিকেটার আছে। তবে পাশাপাশি রাখলে, আমাদের ছিল ইমরান খান, তাদের ছিল কপিল দেব। তুলনা করলে, ইমরান অনেক ভালো ছিল। তার পর আমাদের ছিল ওয়াসিম আকরাম। তাদের তো এই ধরনের ক্রিকেটারই ছিল না।”
“আমাদের জাভেদ মিয়াঁদাদ ছিল, তাদের ছিল গাভাস্কার। কোনো তুলনা চলে না। এরপর আমাদের ছিল ইনজামাম, ইউসুফ, ইউনিস, শহিদ আফ্রিদি তাদের ছিল দ্রাবিড়, শেবাগ। সার্বিকভাবে দেখলে, পাকিস্তান ভালো ক্রিকেটার বের করেছে বেশি। এসবই বড় কারণ। এই কারণেই পাকিস্তানের সঙ্গে খেলতে চায় না ভারত।”

অক্টোবর ০৬
০৪:৫১ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]