Daily Sunshine

পুড়াপুকুরের মাদ্রাসা ও কবরস্থানের জমির নামজারি খারিজ না করতে আবেদন

Share

স্টাফ রিপোর্টার: পবার পুড়াপুকুরের মাদ্রাসা ও কবরস্থানের অবৈধভাবে বিক্রিত জমির নামজারি খারিজ না করতে আবেদন জানিয়েছে এলাকাবাসী। সোমবার পবা সহকারি কমিশনার ভূমি অফিসসহ বিভিন্ন দপ্তরে এ আবেদন করেন তারা। এরআগে ১ অক্টোবর জমি উদ্ধারের দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করে স্থানীয় জনগণ।
জানা গেছে, পারিলা ইউনিয়নের পুড়াপুকুর মৌজার জেল নং-১৫৭, ১৯৯৬ সালে ও ১৯৯৭ সালে পারিলা পুড়াপুকুর দাখিল মাদ্রাসা ও কবরস্থানের নামে জমি দান করেন মো. আলহাজ্ব আবু বক্কর। তখন থেকে স্থানীয় মানুষ সেখানে মৃতদেহের দাফন সম্পন্ন করে। এছাড়াও ওই জমির ওপরে স্থানীয়রা মসজিদসহ কয়েকটি নির্মাণ করে মাদ্রাসার কাজ চলতে থাকে। করোনা মহামারির মধ্যে অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মত এই মাদ্রাসার কার্যক্রম বন্ধ থাকে। এই ফাকে কিছু অর্থলোভী ভুয়া কমিটি গঠন করে চলতি বছরের ৯ সেপ্টেম্বর রাহমানিয়া কমপ্লেক্স’র কাছে বিক্রয় কবলা বিক্রি করেন। যা ক্রেতার ভুয়া ঠিকানা দিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করে। দলিলে রাহমানিয়া কমপ্লেক্স’র ঠিকানা সাং পুড়াপুকুর, মতিহার, পবা, রাজশাহী বরাবর উল্লেখ আছে। কিন্তু পারিলা ইউপির চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলু জানান, ওই ঠিকানায় রাহমানিয়া কমপ্লেক্স’র কোন অস্তিত্ব নাই এবং আগেও ছিলনা। প্রেক্ষিতে অবৈধভাবে রেজিস্ট্রিকৃত জমি নামজারি খারিজ না করতে এলাকাবাসীর পক্ষে পারিলা ইউপির চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুল পবা ভূমি অফিসে আবেদন করেন।

অক্টোবর ০৫
০৫:৩৯ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]