Daily Sunshine

পাঁচবিবি স্টেশনের দুরাবস্থা

Share

মতলুব হোসেন, জয়পুরহাট: বৃটিশ আমলে স্থাপিত জয়পুরহাটের পাঁচবিবি রেলওয়ে স্টেশনে অদ্যবদি আধুনিকতার কোন ছোঁয়া লাগেনি। যদিও প্রতিদিন শত শত যাত্রী এ স্টেশন দিয়ে ট্রেন যোগে যাতয়াত করে। টিকিট বিক্রয়ের মাধ্যমে সরকার যথেষ্ট রাজস্ব পেলেও নেই স্টেশনের উন্নয়ন ও ভালো যাত্রী সেবার কোন ব্যবস্থা। এ স্টেশনটিতে ৬টি আন্তঃনগর ও ২টি মেইল ট্রেন যাত্রাবিরতীর পাশাপাশি মালবাহি ট্রেনও নিয়মিত দাঁড়ায়।
এলাকাবাসির দীর্ঘদিনের দাবী পাঁচবিবি থেকে খুলনাগামী আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতী আজও বাস্তবায়ন হয়নি। পাঁচবিবি স্টেশনের প্লাটফর্মটি অধিক নিচু হওয়ায় শিশুসহ নানান বয়সের লোক ছাড়াও চিকিৎসার জন্য রোগীদের ট্রেনে ওঠা-নামায় অনেক কষ্ট পোহাতে হয়। এছাড়া প্লাটফর্মটির দৈর্ঘ্য কম হওয়ায় আন্তঃনগর ট্রেনের এসি বগিগুলো প্লাটফর্মের বাহিরে দাঁড়ায় এতে যাত্রীদের ট্রেনে উঠতে ও নামতে বেশ কষ্ট হয়।
স্টেশনের বিশ্রামাগারটির অবস্থাও করুন। করোনাকালে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় বিশ্রামাগারটি একেবারে ব্যবহারের অনুপযোগি হয়েছে পড়েছে। বসার চেয়ারগুলো একত্রে জড়ো করে রাখা হয়েছে। স্টেশনের মুখেই পানি নিষ্কাশনের ড্রেনের অবস্থা আরো করুন ময়লা-আবর্জনায় ভরা। পঁচা পানির গন্ধ চতুরদিকে ছড়িয়ে পরে অল্পসময়ও যাত্রীদের ওই জায়গায় অবস্থান করা দূরহ ব্যাপার।
ট্রেনযাত্রী ইনামুল হক বলেন, ট্রেনের পাদানী হতে প্লাটফর্ম অধিক নিচু হওয়ায় আমার মত অন্য যাত্রীদের ট্রেনে নামতে ও উঠতে বেশ কষ্ট হয়। তিনি আরো বলেন, শিশু ও রোগীদের ক্ষেত্রে কষ্ট অধিক এজন্য প্লাটফর্মটি আর একটু উচু করলে সবার জন্য ভালো হয়।
পাঁচবিবি স্টেশন মাস্টার আব্দুল আওয়াল বলেন, স্টেশনের বেশকিছু সমস্যার বিষয়ে উর্ধত্বন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। তিনি আরো বলেন, রেলের রাজশাহী অঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহো ও পাকশীর ডিআরএম স্যার কিছুদিন পূর্বে পাঁচবিবি স্টেশনটি পরিদর্শন শেষে এসব সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

অক্টোবর ০৩
০৬:৩৪ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]

সর্বশেষ