Daily Sunshine

নিয়ামতপুরে মাছ মারা নিয়ে মারামারি, ৮ ব্যক্তি আহত

Share

নিয়ামতপুর প্রতিনিধি: নওগাঁর নিয়ামতপুরে পুকুরে মাছ মারাকে কেন্দ্র করে মারামারি। প্রতিপক্ষের আঘাতে ৮জন আহত হয়। আহতদের নিয়ামতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে নিয়ামতপুর থানায় ৬জনকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের রসূলপুর দীঘিপাড়ায় একটি খাস পুকুরে গ্রামবাসী সবাই মিলে মাছ চাষ করে। মাছ বড় হলে তা সবাই মিলে ভাগ বাটোয়ারা করে নেয়। সম্প্রতি গত মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ১১টায় গ্রামবাসী সবাই মিলে মাছ মারলে গ্রামের মৃত- আব্দুস সালামের ছেলে এমদাদুল হক বাবু ও কুতুব উদ্দিনের ছেলে মহসিন এসে আশরাফুল ইসলামের ছেলে ওসমান গনি ও তার বংশধরদের মাছ দিবে না বলে কথা কাটাকাটি শুরু করে। এক পর্যায়ে আব্দুস সালামের ছেলে তাহেরুল ইসলামের হুকুমে দলবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র লাঠি, হাসুয়া নিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে। এত ৮জন আহত হয়।
এ বিষয়ে বাদী আশরাফুল ইসলামের ছেলে ওসমান গনি বলেন, যখন তারা আমাদের মাছ দেবে না বলে জানায়, তখন কথা কাটাকাটির এ পর্যায়ে তারা দলবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র লাঠি ও হাসুয়া নিয়ে আমাদের উপর আক্রমন করে। এতে আমি, আমার বড় ভাই আব্দুস সাত্তার, বাবা আশরাফুল ইসলাম, চাচাতো ভাই কাওসার, চাচা আশাদুল হক বাবু, বদিউদ্দিন, আরেক চাচাতো ভাই সবুজ আলী ও চাচা মনিরুল ইসলাম আহত হয়।
তিনি আরো জানান, হাসুয়ার আঘাতে আব্দুস সাত্তার, আশাদুল হক বাবু ও কাওসারের হাতে ও মাথায় মারাত্মকভাবে জখম হলে তাদের রাজাশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়।
নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ হুমায়ন কবির জানান, অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সেপ্টেম্বর ৩০
০৬:০৯ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]