Daily Sunshine

ফেসবুকে পরিচয়ের পর প্রেম, বিয়ে করে প্রতারণা, যুবক আটক

Share

স্টাফ রিপোর্টার : ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয়ের সূত্র ধরে নারীর সঙ্গে প্রতারণা করে বিয়ের পর ফের নতুন কৌশলে প্রতারণার অভিযোগে রাজশাহীতে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজশাহী নগরীর কোর্টস্টেশন এলাকা থেকে রাবিবার রাতে ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। তার নাম রবিউল ইসলাম রবি (৩০)। সে রাজশাহী নগরীর দামকুড়া থানাধীন কলারটিকর গ্রামের আসাদ আলীর ছেলে। নিজেকে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্ণেল পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলো সে। আরএমপি’র সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
আরএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটের প্রধান ও সহকারী কমিশনার উৎপল কুমার চৌধূরী জানান, পাবনা সুজানগরের এক বিবাহিত নারীর সঙ্গে ফেসবুকে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্ণেল পরিচয় দিয়ে রবিউলের পরিচয় হয়। এরপর একবছর ধরে তাদের মধ্যে ফেসবুক মেসেঞ্জার এবং মোবাইলে যোগাযোগের মাধ্যমে সম্পর্ক আরও গভীর হয়। রবিউল নানাভাবে মিথ্যা আশ্বাস ও প্রলোভন দেখিয়ে ফরিদার বিশ্বস্ততা অর্জন করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। সাক্ষাতও হয়। রবিউল মিথ্যা আশ্বাসে ওই নারী তার স্বামীকে তালাকও দেয়। এরপর রবিউল গত ১৩ আগস্ট ওই নারীকে বিয়ে করে।
বিয়ের পর থেকেই গোপনে রবিউল তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের আপত্তিকর ছবি মোবাইলে ধারণ করে। একসময় ওই নারী তার এসব বিষয় জানতে পারে। এক পর্যায়ে রবিউল ওই নারীকে টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে। ওই নারী জানায়, রবিউল প্রায়ই মোবাইলে নিজেকে কর্নেল পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি অফিসার ও ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলতো। নানাভাবে প্রতারণা করছিলো।
তবে ওই নারী রবিউলের প্রতারণার বিষয়টি জানতে পারলে তারসঙ্গে খারাপ আচরণ শুরু করে রবিউল। এ কারণে মান-সম্মানের কথা চিন্তা করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর রবিউলকে তালাক দেয়। এতে রবিউল আরো ক্ষিপ্ত হয়ে গোপনে একটি ফেসবুক একাউন্ট খোলে। এরপর সেই ফেসবুক একাউন্টের মেসেঞ্জার থেকে তার (ওই নারীর) আত্মীয় স্বজনদের নিকটে মানহানিকর ম্যাসেজ এবং গোপনে ধারণকৃত তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের আপত্তিকর ছবি পাঠায়।
রবিউল কেন গোপনে এই কাজগুলো করছে ওই নারী জানতে চাইলে রবিউল টাকার দাবি করে এবং টাকা না দিলে তার প্রথম পক্ষের স্বামী, সন্তানসহ নিকট আত্মীয়দের মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। এছাড়া মোবাইলে গোপনে ধারনকরা আপত্তিকর ও অশ্লীল ছবি ফেসবুক আইডি থেকে ভাইরাল করে দিবে বলে ভয় দেখায়।
এতে ওই নারী নিরুপায় হয়ে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের দামকুড়া থানায় এসে একটি অভিযোগ দাখিল করেন। পরবর্তীতে সাইবার ক্রাইম ইউনিট তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে অভিযোগটি বিশ্লেষণ করে সত্যতা পায় এবং আসামীর ব্যবহৃত ডিভাইসসহ পরিচয় ও অবস্থান শনাক্ত করে। অবশেষে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা পুলিশ।
পুলিশ জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারক রবিউল তার অপরাধের কথা স্বীকার কে ছে। সে আরো জানায় দীর্ঘদিন যাবৎ ভুয়া সেনাকর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন প্রতরণামূলক কাজ করে আসছিলো।

সেপ্টেম্বর ২১
০৭:০১ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]