Daily Sunshine

রাবিতে শহিদ রিমু দিবস পালিত, স্মৃতিস্তম্ভ সংস্কারের দাবি

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রমৈত্রীর নেতা শহিদ জুবায়ের চৌধুরী রিমুর ২৮তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করেছে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী। দিবসটি উপলক্ষে রোববার বেলা ১১টার দিকে ছাত্রমৈত্রীর দলীয় ট্রেন্ট থেকে একটি শোক র‌্যালি বের করা হয়।
শোক র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শের-ই-বাংলা ফজলুল হক হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে রিমুর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শহিদ রিমুর স্মৃতিস্তম্ভের জরাজীর্ণ চিত্র দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তারা বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আজকের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের যে প্রশাসন তা জুবায়ের চৌধুরী রিমু, দেবাশীষ ভট্টাচার্য রূপমসহ মতো অসংখ্য শহিদের রক্তের বিনিময়ে প্রতিষ্ঠিত। তারা রক্ত না দিলে বিশ্ববিদ্যালয়ে আজকের প্রশাসন প্রতিষ্ঠিত হওয়া সম্ভব ছিল না। এই আমলেই যদি রাবি প্রাঙ্গনে থাকা শহিদ ছাত্রদের স্মৃতিস্তম্ভ অযত্নে অবহেলিত হয়ে থাকে; তবে আমাদের জন্য তা লজ্জা এবং দু:খের।
বক্তারা অতি দ্রুত বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শহিদদের স্মৃতিস্তম্ভগুলো সংস্কার করতে প্রশাসনের কাছে দাবি জানান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ও ছাত্রমৈত্রীর সাবেক নেতা দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, জেলার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আশরাফুল হক তোতা, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মনিরুদ্দীন পান্না, নাজমুল করিম অপু, কাশিয়াডাঙ্গা থানার সভাপতি শামীম ইমতিয়াজ, সাধারণ গোলম রসুল বাবলু, মতিহার থানার সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন আলম, সাবেক ছাত্রনেতা মাসুম আক্তার অনিক, বিমান চক্রবর্তী, আকছারুজ্জামান সুমন, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ওহিদুর, মোহাইমিনুল রহমান রানা, বিজয় সরকার প্রমুখ।
১৯৯৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর বহিরাগত সশস্ত্র ক্যাডারদের নিয়ে শের-ই-বাংলা হলে পরিকল্পিত হামলা চালায় শিবির। শিবির কর্মীদের হামলার শিকার হন হলের ছাত্ররা। এ সময় সন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী বিভিন্ন কক্ষে তল্লাশি চালায় এবং বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর নেতা কর্মীদের খুঁজে খুঁজে হাত-পায়ের রগ কেটে দেয়। আহত অবস্থায় পড়ে থাকা রিমুকে কুপিয়ে হত্যা করে।
শহিদ জুবায়ের চৌধুরী রিমুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পরে ওয়ার্কার্স পার্টি, ছাত্রমৈত্রী ও শহিদ জামিল ব্রিগেডের সদস্যরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনসহ বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে ঘুরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করেন।
এসময় তারা শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারিদের রাবিতে সংক্রমণ ঠেকাতে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

সেপ্টেম্বর ২০
০৭:০০ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]