Daily Sunshine

রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে আফগানিস্তানকে হারাল যুবারা

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: মেহরব হাসান ও প্রান্তিক নওরোজ নাবিলের কার্যকর দুটি ইনিংসে কোনোমতে দেড়শ ছাড়াতে পারল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। সেই পুঁজি নিয়েই দারুণ বোলিং করলেন রিপন মণ্ডল, আশিকুর জামানরা। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গেল বাংলাদেশের যুবারা।
সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুক্রবার প্রথম যুব ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের জয় ১৬ রানে। ১৫৪ রানের পুঁজি নিয়ে সফরকারীদের ১৩৮ রানে গুটিয়ে দেয় মেহরবের দল। ব্যাটিংয়ে বড় অবদান অধিনায়ক মেহরবেরই। ৫৭ বলে তিনি করেন সর্বোচ্চ ৪৯ রান। ওপেনার নাবিলের ৪২ ছাড়া দুই অঙ্কে যেতে পারেন আর কেবল একজন। ২০ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বোলিংয়ে নায়ক পেসার রিপন।
টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই মফিজুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলামকে হারায় বাংলাদেশ। ১২ রানে ২ উইকেট হারানোর ধাক্কা দল সামাল দেয় দল নাবিল ও আইচ মোল্লার জুটিতে। গত যুব বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ছিলেন নাবিল। মূল টুর্নামেন্টে যদিও খেলার সুযোগ পাননি। আইচকে নিয়ে তিনি বাড়াতে থাকেন দলের রান। আইচ ৩৮ বলে ২২ করে ফিরলে ভাঙে ইনিংস সর্বোচ্চ ৬০ রানের জুটি।
নাবিল ছিলেন ফিফটির পথে। একটু পর ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনিও। ৭৮ বলে ৩ চারে গড়া তার ৪২ রানের ইনিংস। এরপর দ্রুত বিদায় নেন তাহজিবুল ইসলাম, রিপন ও গোলাম কিবরিয়া। তখন ১০৬ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে দেড়শর আগেই গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় স্বাগতিকরা। অষ্টম উইকেটে নাইমুর রহমানের সঙ্গে ৩৯ রানের জুটিতে দলকে উদ্ধার করেন মেহরব। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়া এই বাঁহাতি ৫৭ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় করেন ৪৯ রান।
২১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে আফগানিস্তানের সেরা বোলার বিলাল সামি। বাঁহাতি স্পিনার শাহিদুল্লাহ হাসানির শিকার ৩টি। রান তাড়ায় আফগানদের শুরুটাও ভালো হয়নি। ষষ্ঠ ওভারে সুলিমান আরবজাইকে এলবিডব্লিউ করে শিকার ধরেন রিপন। দ্বিতীয় উইকেটে ৪২ রানের জুটি গড়ে ফেলেন সুলিমান সাফি ও অধিনায়ক ইজাজ আহমেদ। ১৮ রান করা ইজাজকে নাবিলের ক্যাচ বানিয়ে জুটি ভাঙেন অধিনায়ক মেহরব।
ফিফটির পথে থাকা সাফিকে এলবিডব্লিউ করে দেন স্পিনার নাইমুর। মাঝে আরিফুলের শিকার মোহাম্মাউল্লাহ নাজিবুল্লাহ। ৯২ বলে ৪টি চার ও একটি ছক্কায় সাফি করেন সর্বোচ্চ ৪৮ রান। রিপন-আশিকুরদের দারুণ বোলিংয়ে এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ১০ বল বাকি থাকতেই অল আউট হয় আফগানরা। ইয়ামা আরবকে ফিরিয়ে তাদের ইনিংস গুটিয়ে দেন রিপন।
আশিকুর ২৫ রানে নেন ২ উইকেট। নাইমুর ২ উইকেট নেন ৩১ রানে। আগামী রোববার একই মাঠে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় যুব ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দুই দল। গত যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সাফল্যের পেছনে বড় ভূমিকা ছিল আগের দুই বছরে প্রচুর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে প্রস্তুতি নেওয়ার। কিন্তু এবারের অনূর্ধ্ব-১৯ দল কোভিড পরিস্থিতির কারণে ম্যাচ অনুশীলনের সুযোগই পাচ্ছিল না সেভাবে। আফগানদের বিপক্ষে এই সিরিজ দিয়েই শুরু হলো যুবাদের আগামী বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি।

সেপ্টেম্বর ১১
০৫:৩৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]