Daily Sunshine

‘লঘুচাপে, আর্দ্রতায়’ ভ্যাপসা গরম

Share

সানশাইন ডেস্ক: তাপপ্রবাহ বয়ে না গেলেও ভাদ্র মাসের শেষ দিকে এসে শুক্রবার বেশ তপ্ত দিন পার করল ঢাকাবাসী। এদিন ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা আগের দিনের চেয়ে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।
জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, “হঠাৎ তাপমাত্রা বেড়েছে বেশ। শুক্রবার ঢাকা, চাঁদপুর, মাইজদী কোর্ট, সিলেট ও শ্রীমঙ্গলসহ বিক্ষিপ্তভাবে অনেক এলাকায় ৩৬ থেকে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে।” গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ফেনীতে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরই মধ্যে মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপও সৃষ্টি হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।
তিন কারণে শুক্রবার বেশ গরম অনুভূত হচ্ছে জানিয়ে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, “বৃষ্টিপাত কমে গেছে, বাতাসে জলীয় বাষ্পও বেশি রয়েছে। এ সময় লঘুচাপের প্রভাবের মধ্যে তাপমাত্রাও বেড়েছে। সব মিলিয়ে বেশ গরম অনুভূত হচ্ছে। তবে বিস্তীর্ণ এলাকায় তাপমাত্রা না বাড়ায় কোথাও তাপপ্রবাহ বিরাজ হচ্ছে না।” সাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি আরও ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও নিম্নচাপে রূপ নেওয়ার শঙ্কা রয়েছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে শনিবার সমুদ্রবন্দরে সতর্কতা সংকেতও দেখাতে বলা হতে পারে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্হায় রয়েছে। এ সপ্তাহের শেষ দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়ার আভাস রয়েছে।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে নিকলীতে ২৯ মিলিমিটার। এসময় ঢাকায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ছিল ১৪ মিলিমিটার। শনিবারের পূর্বাভাসে বলা হয়, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্হায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।
এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে উড়িষ্যা উপকূলের অদূরে উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়। পরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশ ও তৎসংলগ্ন উড়িষ্যা এলাকায় দুর্বল হয়ে পড়ে। এবারের লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে উত্তর পশ্চিমে ভারতের দিকে অগ্রসর হবে বলে জানান আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস।
এদিকে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, বিরাজমান বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি অব্যাহত রয়েছে। দেশের প্রধান নদ-নদীর পানি কমা আগামী ৭২ ঘণ্টা অব্যাহত থাকবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১০৯টি পর্যবেক্ষণ পয়েন্টের মধ্যে ৮৮টি পয়েন্টে পানি কমেছে। তবে ৭টি পয়েন্টে এখনও পানি বিপদসীমার উপরে বয়ে যাচ্ছে।

সেপ্টেম্বর ১১
০৫:৩৫ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]