Daily Sunshine

সড়কের পাশে বাইক পুকুরে যুবকের লাশ

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা : রাজশাহীর বাঘা উপজেলার একটি পুকুর থেকে জুয়েল আলী (৩০) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। একই সময় তার শখের মোটরসাইকেলটি পাওয়া যায় সড়কের ওপর। বুধবার সকালে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়ে মৃত্যু হয় তার।
পরিবারের পক্ষ থেকে এটিকে হত্যাকান্ড বললেও পুলিশ ধারনা করছে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পুকুরে পড়ে তার মৃত্যু হতে পারে। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে।
নিহত জুয়েল চারঘাট উপজেলার পান্নাপাড়া গ্রামের বকবুল হোসেনের ছেলে। বাঘার হরিনা গ্রামের সাহাবুদ্দিনের পুকুর থেকে দমকল বাহিনী ও পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।
জানা যায়, জুয়েল মোটরসাইকেল নিয়ে বুধবার ভোর চারটার দিকে বাঘার তেথুলিয়া-হরিনা সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। ধারনা করা হচ্ছে তিনি হরিনা গ্রামের ফাঁকা স্থানে সাহাবুদ্দিনের পুকুর পাড়ে পৌছলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ছিটকে পুকুরে পড়ে যায়। পরে রাস্তায় চলাচলকারীরা তার মোটরসাইকেল পড়ে থাকতে দেখে ফায়াস সার্ভিস ও পুলিশকে খবর দেয়। বেলা ৯ টার দিকে পুকুর থেকে লাশ ও সড়কের পাশ থেকে তার মোটরসাইকেল উদ্ধার করে।
স্থানীয় হরিনা গ্রামের গোলাম হোসেন বলেন, তিনি ভোরে একজনকে দ্রুতগতিতে মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে দেখেন। ফজরের নামাজের পর খবর পান পুকুলে লাশ পড়ে রয়েছে। জুয়েলের ভাই জহুরুল ইসলাম তার ভাইয়ের লাশ সনাক্ত করে বলেন, জুয়েল ভোরে কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে বের হয়। কিছুদিন আগে ঘটনাস্থলে একটি খুন হয়েছে। তার তার ধারনা ভোরে ফাকা সড়কে তাকে কেউ হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে রাখতে পারে। তিনি এ ঘটনার তদন্ত দাবি করেন।
বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে সড়ক দূর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে। তারপরও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ময়না তদন্তের রিপোর্টের পর মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে। এ ঘটনায় আপাতত থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

সেপ্টেম্বর ০৯
০৬:০৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]