Daily Sunshine

বীজতলায় ব্যস্ত গোদাগাড়ীর টমেটো চাষীরা

Share

সেলিম সানোয়ার পলাশ, গোদাগাড়ী: টমেটোর অঙ্গরাজ্য হিসাবে খ্যত রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা। দেশের সিংগ ভাগ টমেটো উৎপাদন হয় এই উপজেলায়। শীতকালীন সবজি টমেটো আগাম চাষাবাদ করার জন্য বীজতলায় চারা তৈরি ও পরিচর্যা করতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে এ উপজেলার টমেটো চাষিরা।
গোদাগাড়ী উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, চলতি টমেটোর মৌসুমে ( ২০২১-২২ ইং) এ উপজেলায় টমেটো চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় ২ হাজার ৯শ” ৫০ হেক্টোর। গত মৌসুমে ( ২০২০-২১ইং) টমেটো চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২ হাজার ৬শ” ৫০ হেক্টোর। চাষ হয়েছিল ২হাজার ৯শ” ৫০ হেক্টোর। ২০১৯-২০২০ ইং মৌসুমে টমেটো চাষ হয়ে ছিল ২ হাজার ৬শ” ৫০ হেক্টোর। তবে কৃষি অফিস বলছে চলতি বছর লক্ষমাত্রার চেয়ে বেশী টমেটো চাষের সম্ভাবনা রয়েছে।
সরেজমিনে উপজেলার বিদিরপুর, পিরিজপুর, গোপালপুল, ভাটোপাড়া, হেলিপ্যাডসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম ঘুরে টমেটোর বীজতলা নিয়ে চাষিদের কর্মব্যস্ততার দৃশ্য দেখা যায়। সারা বেলা চাষিদের নানামুখী কাজের ফাঁকে ব্যস্ত বীজতলা নিয়ে। কাকডাকা ভোরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়ছেন বীজতলায়। কাঁচি, কোদাল, আনুষঙ্গিক সরঞ্জামাদি নিয়ে নেমে পড়ছেন জমিতে। কেউ কেউ প্রস্তুত করছে বীজতলার জন্য জমি। আবার কেউ গজিয়ে উঠা টমেটোর চারায় পানি দিচ্ছে। অনেকেই ব্যস্ত বীজতলা পরিচর্যায়। এদিকে পুরুষের পাশাপাশি এ কাজে নারীদেরও দেখা মেলে।
সরেজমিনে দেখা যায়, বীজতলা প্রস্তুতের পর জমির মাঝ বরাবর নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে বীজ রোপণ করা হয়েছে। এরপর বাঁশের তৈরি ‘বেড়া’ রিংয়ের মতো বসিয়ে উপরে পলিথিন দিয়ে পুরো বীজতলা মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ব্যপারে চাষি জয়দুল ইসলাম ফেন্সু বলেন, গরম পরিবেশ সৃষ্টি করতে পলেথিন দিয়ে বীজতলা ঢেকে দেওয়া হয়। মাঝে মাঝে ঢেকে দেওয়া পলিথিনগুলো সামান্য উঠিয়ে এক পাশ ফাঁকা করে দেওয়া হয়। যেন বাইরের বাতাস বীজতলায় প্রবেশ করতে পারে। বীজ রোপণ থেকে শুরু করে প্রথম এক সপ্তাহের মতো এ কার্যক্রম চলে। বীজ গজিয়ে ওঠার পর চাষিরা সেই পলিথিনগুলো সরিয়ে ফেলেন। এরপর নিয়মিত চলে পরিচর্যা।
গোদাগাড়ী উপজেলা কৃষি অফিসের কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মোঃ মতিয়র রহমান জানান, আমরা সব সময় কৃষকের সাথে রয়েছি। আগাম জাতের ও টমেটো ক্যারেট করা যায় এমন জাতের টমেটো চাষের জন্য কৃষকদের পরার্মশ দেওয়া এবং ব্যাবস্তা করা হচ্ছে। কৃষকরা যেন আগাম টমেটো ক্ষেত থেকে টমেটো উত্তোলন করতে পারে। এতে কৃষকরা টমেটোর দাম ভাল পাবে।
তিনি আরো বলেন, এসময় কোন অসাধু বীজ ব্যাবসা বীজ নিয়ে কৃষকদের সাথে যেন প্রতারনা করতে না পারে সেই জন্য মাঠ পর্যায়ে মনিটারিং জোরদার করা হয়েছে ।

সেপ্টেম্বর ০৯
০৫:৪৯ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]