Daily Sunshine

ব্যাঙের ছাতার মতো গজানো অনলাইন মাথাব্যথার কারণ

Share

সানশাইন ডেস্ক: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সারাদেশে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা অনলাইন পোর্টালগুলো মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারাবিশ্বেই এটি মাথা ব্যাথার কারণ। তিনি বলেন, আরও কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টালকে নিবন্ধন দেওয়ার পর ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা পোর্টালগুলোর বিরুদ্ধে ম্যাসিভ অ্যাকশনে যাওয়া হবে।
বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব) আয়োজিত ক্র্যাব নিউজ বিডির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। হাছান মাহমুদ বলেন, সারা বিশ্বেই আইপি টিভি রয়েছে। দেশে আইপি টিভি কোনো সংবাদ প্রকাশ করতে পারবে না, টিভির মতো প্রেস কার্ড ব্যবহার করতে পারবে না। কয়েকটির নিবন্ধন দিয়ে বাকিগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। কারণ, এসব টিভি সাধারণ মানুষকে হয়রানি করে। নিবন্ধন পাওয়াদের মধ্যে যেগুলো হয়রানি করবে, সেগুলো সরাসরি বন্ধ করে দেওয়া হবে।
সচিবালয়ের অ্যাক্রিডিটেশন কার্ডের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, কয়েক হাজার কার্ড কারা ব্যবহার করেন, তা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানতে চেয়েছে। এরা কারা তাদের তালিকা চেয়েছে। আমরা তালিকা দিয়েছি। সেখানে প্রায় চার হাজার কার্ড দেওয়া হয়েছে। তালিকা দিতে গিয়ে দেখা গেছে, একেকটি পত্রিকা হাউস ২৫-৩০টি কার্ড নিয়েছে। কিন্তু এত কার্ডধারী ব্যক্তিরা কি সচিবালয় বিট কভার করেন? বড়জোর তিন থেকে চারজন কভার করেন। অতিরিক্ত এসব কার্ড বাতিল করা হবে।
নির্বাচন কমিশনে সাংবাদিকদের কর্ম পরিবেশ নিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, যে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে, সাংবাদিকদের একটি প্রতিনিধিদল গেলেই আশা করছি সেটি সমাধান হয়ে যাবে। সমাধান না হলে তথ্য মন্ত্রণালয় হস্তক্ষেপ করবে। কারণ সেখানে একজন জ্ঞানশূন্য পুলিশ কর্মকর্তার কারণে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সব নাগরিক সুফল পাচ্ছেন এবং পাবেন। তবে সাংবাদিকরা কোনোভাবেই যেন হয়রানির শিকার না হন, তা দেখা হচ্ছে। এরইমধ্যে আগের চেয়ে সাংবাদিকদের হয়রানি কমে এসেছে। কোনো সাংবাদিকের ওপর এ আইনের যেন অপপ্রয়োগ করা না হয় সেদিকে আমরা খেয়াল রাখছি।
এদিন ড. হাছান মাহমুদ বিএনপিকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, বিএনপিকে বলব, তারা যেন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও অগ্নিসন্ত্রাস থেকে বেরিয়ে আসে। তাহলে কেবল বিএনপির রাজনীতি জনগণের কাজে আসবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মুরসালিন নোমানী, ক্র্যাবের জ্যেষ্ঠ সদস্য ও প্রধান উপদেষ্টা শংকর কুমার দে, ক্র্যাব সভাপতি মিজান মালিক প্রমুখ।

সেপ্টেম্বর ০২
০৪:৩০ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]