Daily Sunshine

নগরীতে রেলের জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীতে রেললাইনে পাশে রেলের জমি দখল নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় এনিয়ে বিবাদমান একটি পক্ষ সংবাদ সম্মেলন করেছে। রাজশাহী সংবাদিক ইউনিয়ন অফিসে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে রবিউল ইসলাম অভিযোগ করেন, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে লিজকৃত জমির উপরে থাকা টিনের ঘর ভেঙ্গে দিয়েছে অপর পক্ষ রাশেদ খান মেনন (পাপুল) সহ তার সঙ্গিরা। তারা এই জায়গাটুকু দখলের পায়তারা করছে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে, নগরীর দড়িখরবনা এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে রবিউল বলেন, আমার বাবা মৃত আব্দুল খালেক জীবিত থাকা অবস্থায় নগরীর দড়িখরবনা এলাকার রেললাইন সংলগ্ন ০.০৯ একর রেলের জায়গা বিভাগীয় এস্টেট অফিস পাকশী থেকে কৃষি জমি হিসেবে লিজ নিয়ে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত ভোগ দখল করে। পরবর্তীতে তিনি মারা গেলে আমি (রবিউল ইসলাম) বাংলা ১৪২২ সাল পর্যন্ত খাজনা পরিশোধ করি এবং সেখানে ঘনবসতি গড়ে ওঠায় ফসলাদি না হওয়ায় কাঁচাঘর নির্মাণ করে ভোগদখল করি। কিন্তু সোমবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে আমার বাড়ির পাশের (প্রতিবেশী) আব্দুস সামাদের ছেলে মো. রাশেদ খান মেনন পাপুল অবৈধভাবে জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর ভাঙচুর করে। এনিয়ে পাপুলকে নিষেধ করতে গেলে কথা কাটাকাটি হয় ও গালাগাল দেয়। এছাড়া পাপুল ও পরিবারের লোকজন আমার বাড়িতে হামলা চালায়।
এব্যাপারে নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, রেলওয়ের জমি নিয়ে দুইপক্ষ দ্বন্দ্বে জড়িয়েছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়। পরে এ ঘটনায় রবিবার রাতে উভয়পক্ষই থানায় অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
রেলওয়ের বিবাদমান এই জমি সম্পর্কে জানতে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিমকে ফোন করা হলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে ফোন রেখে দেন। প্রায় দুই ঘণ্টা পর পুনরায় ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

সেপ্টেম্বর ০১
০৫:৩৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]