Daily Sunshine

১০ বারেও হয়নি, এবার বৃত্ত ভাঙতে চায় বাংলাদেশ

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়াও ভাঙাচোরা দল নিয়ে এসেছিল। ছিলেন না চার ব্যাটিং স্তম্ভ স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল আর অ্যারন ফিঞ্চ। ফ্রন্টলাইন ফাস্টবোলার প্যাট কামিন্সও আসেননি।
তারপরও বাংলাদেশে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে নাকাল হয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়া দলটিকে একেবারে ফেলনা বলার উপায় নেই। অসিদের বোলিং আক্রমণ ছিল যথেষ্ট শক্তিশালী। কামিন্স ছাড়া মূল বোলিং শক্তির প্রায় পুরোটাই ছিল। ছিলেন দুই প্রধান ফাস্টবোলার মিচেল স্টার্ক ও জস হ্যাজেলউড। এছাড়া স্পিন আক্রমণে ছিলেন লেগস্পিনার অ্যাডাম জাম্পা এবং বাঁহাতি অ্যাস্টন আগারের মত নিয়মিত পারফরমার।
সে তুলনায় নিউজিল্যান্ড দল অনেকটাই দুর্বল। টম ল্যাথামের নেতৃত্বে যে বহরটি এসেছে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে, তাতে নেই বিশ্বকাপ স্কোয়াডের একজন ক্রিকেটারও। বলা যায় দ্বিতীয় সারির দল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলার সংখ্যা আর নাম-ডাককে মানদণ্ড ধরলে বাংলাদেশের সাথে কোনো তুলনাই চলে না।
তবু বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নিউজিল্যান্ডের এ দলটিকে হেলাফেলার চোখে দেখতে নারাজ। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় ওরা খুব ভালো একটা দল। নিউজিল্যান্ড এমন একটা দল যারা খুব ভালো হোমওয়ার্ক করে এবং খুবই গোছানো। ওরা যে পরিকল্পনা করে, সেই পরিকল্পনাতে থাকার চেষ্টা করে। ওদের সঙ্গে আমাদের ভালো করতে হলে গোছানো ক্রিকেট খেলতে হবে।’
এর আগে দুইবার ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করলেও কখনও টি-টোয়েন্টিতে জিততে পারেনি বাংলাদেশ (১০ ম্যাচের সব কটিতে হার)। এবার সুবর্ণ সুযোগ রেকর্ড গড়ার। মাহমুদউল্লাহও সেটা জানেন। তিনি বলেন, ‘এটা খুব ভালো সুযোগ দল হিসেবে। আমরা যেন আমাদের মানটা রাখতে পারি। আমরা সবসময় বলি ঘরের মাঠে আমরা খুব ভালো একটা দল। সেটা প্রমাণ করার তাগিদ আছে। ইনশাআল্লাহ আমরা সেই চেষ্টাই করব।’

সেপ্টেম্বর ০১
০৫:৩২ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]