Daily Sunshine

নাটোরের সাংসদ শিমুলের পিতাকে রাজাকার বলায় মানহানীর মামলা

Share

স্টাফ রিপোর্টার,নাটোর: নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনের সংসদ সদস্য মো: শফিকুল ইসলাম শিমুলের পিতা হাসান আলী সরদারকে রাজাকার বলায় রাজশাহী মহানগর ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সভাপতি, গবেষক ড. সুজিত কুমার সরকার এবং নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ স¤পাদক শফিউল আযম স্বপনকে আসামী করে নাটোরের আদালতে মানহানীর মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নাটোরের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন সংসদ সদস্যের ছোট ভাই পরিবহন ব্যবসায়ী সাজেদুল আলম সাগর। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে র‌্যাবকে তদন্ত করে আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার বিবরণে বলা হয়, গত ২৫ জুলাই নাটোরের স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে নাটোর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের এক সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ স¤পাদক শফিউল আযম স্বপন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগের সভাপতি সুজিত কুমার সরকারের লেখা নাটোর জেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও নাটোর জেলার ইতিহাস ঐতিহ্য ও মুক্তিযুদ্ধ নামক গ্র›েহর উদ্বৃতি দিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের পিতাকে রাজাকার বা স্বাধীনতা বিরোধি হিসেবে আখ্যায়িত করেন। এসময় সংসদ সদস্য শিমুলকে রাজাকারের সন্তানও বলা হয় সংবাদ সম্মেলনে। এ নিয়ে সংসদ সদস্য শিমুল ও তার পরিবার, রাজনৈতিক ভাবে ও সামাজিক ভাবে ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন এবং মানহানী হয়েছে। এসময় বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আরিফুর রহমান সরকার আসামীদেও আদালতে স্ব শরীরে হাজির হয়ে ব্যাখা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিতে আদালতের কাছে আবেদন জানান। বিচারক এ এফ এম গোলজার রহমান আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য র‌্যাবের নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডারকে দায়িত্ব দিয়েছেন। এসময় আদালতে জেলা আওয়ামী লীগের নেতা ও আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট প্রসাদ কুমার তালুকদার বাচ্চা, জেলা দপ্তর স¤পাদক দিলীপ কুমার দাস ও জেলা যুবলীগ সভাপতি বাসিরুর রহমান খান চৌধুরি এহিয়া ও বাদীর আইনজীবী সায়েম হোসেন উজ্জল ও জাহাঙ্গীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ স¤পাদক শফিউল আযম স্বপন এ বিষয়ে বলেছেন, আমি যা বলেছি তথ্য প্রমাণ দিয়েই বলেছি। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক গবেষক ড. সুজিত কুমার সরকার নাটোর জেলার ইতিহাস ঐতিহ্য ও মুক্তিযুদ্ধ নামক বইয়ে রাজাকারের তালিকায় সংসদ সদস্যসের পিতার নাম উল্লেখ থাকায় সেটা বলেছি। তাছাড়া ২০১২ সালে সংসদ সদস্য নলডাঙ্গা উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আসাদুজ্জামান আসাদের বিরুদ্ধে অনুরুপ একটি মামলা করেছিলেন, আদালত তখন তা নথিজাত করে বাতিল করে দিয়েছিল।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. সুজিত কুমার সরকার বলেছেন, আমি কারো প্রতি কোন রাগ ক্ষোভের কারণে এমন বই লিখিনি। তিন বছর মাঠে ময়দানে কাজ করে যে তথ্য পেয়েছি তা যাচাই বাছাই করেই লিখেছি। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে বাংলা একাডেমি থেকে আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল নাটোর জেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস রচনার জন্য। সরকার পরিবর্তণ হওয়ায় তখন বইটি আর প্রকাশ না হওয়ায় ২০১০ সালে প্রথম এবং ২০২১সালে আমি ২য়বার বইটি প্রকাশ করি।

আগস্ট ১১
০৪:৪৮ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]