Daily Sunshine

বিকাশ প্রতারক চক্রে সতের হাজার টাকা খোয়ালেন নারী

Share

পুঠিয়া প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়ায় বিকাশ প্রতারকচক্র সক্রিয় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ চক্র সুকৌশলে তাদের প্রতারণার ফাঁদ পেতে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এতে এক শ্রেণির মানুষ তাদের ফাঁদে ধরা পড়ছে।
জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিকাশের প্রতারণার ফাঁদে পড়েন শাপলা নামের এক নারী। ওই নারীর বাড়ি চারঘাট উপজেলায়। তিনি বিভিন্ন পণ্য ফেরী করে বিক্রি করেন। ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, গত কয়েক মাস আগে তার ছেলের উপবৃত্তির জন্য নগদের একাউন্ট খোলা হয়। সেসময় তারা একটি পিন কোড দিয়ে বলে এর মাধ্যমে আপনি টাকা উঠাতে পারবেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে তার ব্যবহৃত মোবাইলে ০১৮৩৮-৯৪৩৭১০ নম্বর থেকে কল করে জানানো হয়। তার ছেলের উপবৃত্তির টাকা তার মোবাইলে ম্যাসেজ আসছে কিন্তু আপনি ম্যাসেজটি দেখতে পাচ্ছে না। সেসময় তিনি ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে দেখেন একটি ম্যাসেজ আসছে কিন্তু তা দেখা যাচ্ছে না। এসময় প্রতারক চক্র সুকৌশলে তাকে মোবাইলে লেনদেন না হওয়ায় এ ম্যাসেজটি দেখা যাচ্ছে না বলে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে।
পরে ভুক্তভোগী নারীকে বলা হয় আপনি একটি বিকাশ এজেন্টের দোকানে গিয়ে ১৭ হাজার ৫’শ টাকা বিকাশ করেন তবে টাকা এজেন্টের মোবাইলেই থাকবে আর আপনার মোবাইলে একটি ম্যাসেজ আসবে। এতে আপনার মোবাইলে উপবৃত্তির টাকা চলে আসবে। তাকে ০১৩২১-৪৬৪৮২৪ নম্বরে উক্ত টাকা বিকাশ করতে বলা হয়।
এছাড়াও বিষয়টি বিকাশ এজেন্টকে না জানানোর কথা বলা হয়। তিনি তাদের প্রতারণার শিকার হয়ে উপজেলার বানেশ্বর যাত্রিছাউনি সংলগ্ন পদ্মা মোবাইল সেন্টারে বিকাশ করতে যান। সেসময় বিকাশ এজেন্টের কাছে টাকা কম থাকায় ৬ হাজার ৮’শ টাকা বিকাশ করা হয়।
এজেন্ট বিকাশ করলেও টাকা আনসেন্ট দেখায়। পরে বিকাশ প্রতারণার চক্র ০১৩১৬-৪১৩১৮৯ নম্বরে ১১ হাজার ৫’শ টাকা এবং ০১৭৫৮-১০১৮৬৩ নম্বরে ২৪ হাজার ৫’শ টাকা বিকাশ করতে বলে। প্রথম দুটি নম্বরে বিকাশ করার সময় টাকা আনসেন্ট দেখায় পরে তৃতীয় নম্বরে বিকাশ করার সাথে সাথে সবগুলো টাকা সেন্ট হয়ে যায়।
এসময় তাদের সবগুলো মোবাইল নম্বর বন্ধা থাকায় আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি বলে ভুক্তভোগী ওই নারী জানান। পরে নিরুপায় হয়ে শনিবার ভুক্তভোগী নারী বাদি হয়ে পুঠিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
এ বিষয়ে পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, বিভিন্ন ভাবে বিকাশের মাধ্যমে একটি প্রতারক চক্র দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছে। যেহেতু মোবাইল নম্বরগুলো রেজিস্ট্রেশন করা, এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

আগস্ট ০৯
০৫:১৪ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]