Daily Sunshine

মান্দায় প্রতিপক্ষের হামলায় ভাঙচুর, তিন নারী আহত

Share

মান্দা প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে একটি খাবারের দোকানে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। শনিবার দুপুরে উপজেলার মৈনম ইউনিয়নের শরিরমোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় তিন নারী আহত হন।
আহতরা হলেন, উপজেলার দক্ষিণ মৈনম গ্রামের হাবিবুর রহমানের মা ফুলজান বিবি (৭০), তার স্ত্রী আকলিমা বেগম (৫০) ও পুত্রবধূ শান্তনা আক্তার (২৬)। আহতদের উদ্ধার করে নওগাঁ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৪ বছর আগে দক্ষিণ মৈনম গ্রামের আবুল হোসেনের দোকানঘর জামানত দিয়ে ভাড়া নেন একই গ্রামের হাবিবুর রহমান। এরপর দীর্ঘদিন ধরে ওই দোকানে ব্যবসা করে আসছিলেন তিনি। পরবর্তীতে আবুল হোসেনের ভাগ্নে আমজাদ হোসেনের নিকট থেকে ওই জায়গা কিনে নেন হাবিবুরের ছেলে হেলাল উদ্দিন। এ নিয়ে উভয়ের পক্ষে বিরোধ সৃষ্টি হয়।
স্থানীয়রা আরো জানান, গত শুক্রবার বিকেলে পুলিশ হাবিবুরের দোকানে অভিযান চালিয়ে বেশকিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে। এ ঘটনায় হাবিবুর রহমান ও তার ছেলে হেলাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
এ সুযোগে প্রতিপক্ষের লোকজন শনিবার দুপুরে দোকানটিতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। বাধা দেওয়ায় ফুলজান বিবি, আকলিমা বেগম ও শান্তনা আক্তারকে পিটিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষরা।
তবে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জমি ও দোকান মালিক আবুল হোসেন। তিনি বলেন, ‘পৈত্রিক সূত্রে ও বোন আয়েশা বিবির অংশ কিনে নিয়ে ওই জমিতে দোকানঘর নির্মাণ করে হাবিবুর রহমানকে ভাড়া দিয়েছি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি আমার দোকান ঘরে ব্যবসা করে আসছেন। হঠাৎ করে একটি সৃষ্টি করে ওই সম্পত্তি দাবি করেন হাবিবুর রহমান। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়।’
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, হামলার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় এজাহার করা হয়নি। এজাহার পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আগস্ট ০৯
০৫:১৩ ২০২১

আরও খবর

[TheChamp-FB-Comments]