Daily Sunshine

বাগমারায় বিলের দীঘিতে শত্রুতার বিষে মাছ নিধন

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাগমারা: রাজশাহীর বাগমারায় নরদাশ ইউনিয়নের পদ্ম বিলের দিঘিতে চাষকৃত মাছে বিষ প্রয়োগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে প্রায় ৫ থেকে ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেছেন দিঘীর মালিকরা। দিঘীতে বিষ প্রয়োগ করায় পানিতে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হলে প্রায় ৫০ মণ মাছের পোনাসহ মজুদকৃত মাছ মরে গেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নরদাশ ইউনিয়নের পদ্ম বিলের দিঘিতে। বুধবার রাতের কোন একসময় দুর্বৃত্তরা তরল জাতীয় বিষ বিলের বিভিন্ন স্থানে বোতল এবং পলিথিনে করে ফেলে যায়।
বৃহস্পতিবার সকালে ওই দিঘিতে চাষকৃত মাছ মরে ভেসে উঠেছে এমন খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন দিঘির মালিকরা। এ সময় তারা এমন প্রতিহিংসামূলক কর্মকান্ড দেখে হতবাগ হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে আশেপাশের লোকজনও ঘটনাস্থলে ছুটে এসে এমন অমানবিক কর্মকান্ড দেখে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তির দাবী জানান। এ সময় প্রায় শত শত বিভিন্ন জাতের মাছের পোনা মরে পানিতে ভাসতে দেখা যায়।
বিগত দুই বছর থেকে জমির মালিকদের নিকট থেকে জমি লীজ নিয়ে দিঘি খনন করে মাছ চাষ করেছেন তারা। জমির মালিকদের সাথে মাছ চাষ নিয়ে কোন বিরোধ না থাকলেও শত্রুতা করে জনৈক প্রতিপক্ষরা দিঘিতে বিষ প্রয়োগ করেছে বলে জানান দিঘীর সভাপতি ইউপি সদস্য আবুল কাশেম।
স্থানীয়রা জানান, চলতি বছরের জন্য দিঘিতে রুই, কাতলা, মৃগেল, সিলভার, চিতল, আইড়সহ বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় একশ মণ মাছ চাষের জন্য মজুদ করা হয়েছে। সেই মাছ দিনে দিনে বড় হলে প্রায় ২০ থেকে ৩০ লাখ টাকার মাছ বিক্রি করা হতো বলে জানান দিঘির মালিক মাষ্টার গোলাম মোস্তাফা।
তিনি আরো জানান, মৌসুমের আগেই মাছগুলো বিষ দিয়ে মেরে ফেলায় অনেক টাকার ক্ষতি হয়েছে।
এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, এ বিষয়ে এখন কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জুন ১১
০৫:৩২ ২০২১

আরও খবর